রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

রবিবার ২৬ জুন ২০২২, ১২ই আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

০৯:০৩ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ নোয়াখালীতে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃত্যু ◈ কালিহাতীতে আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসরত পরিবারের মাঝে খাবার বিতরণ ◈ রাজারহাটে আওয়ামী লীগের বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ◈ রৌমারীতে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে স্প্রে মেশিন বিতরণ। ◈ বেদে সম্প্রদায়সহ বানভাসি অসহায় মানুষের পাশে,মধ্যনগর থানা পুলিশ ◈ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে ডামুড্যায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।। ◈ স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে কালিহাতী থানা পুলিশের আতশবাজি প্রদর্শনী ◈ হাইওয়ে পুলিশের উদ্যোগে শেরপুরে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ ◈ পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠান ভার্চুয়ালি উপভোগ করেণ দুর্গাপুর উপজেলা প্রশাসন ◈ দুর্গাপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে বিনামূল্যে ঔষধ ও ত্রাণ বিতরণ করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

ভূঞাপুরে চরাঞ্চলে তিলের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

প্রকাশিত : 07:14 PM, 27 May 2022 Friday 39 বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

কোরবান আলী তালুকদার, ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনার চরাঞ্চলে চলতি বছরে তিলের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছেন উপজেলা কৃষি অফিস ও তিল চাষীরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবং বন্যা আসার আগেই তিল ঘরে তুলতে পারলে অর্থনৈতিকভাবে ঘুরে ধারাতে পারবে চরাঞ্চলের তিল চাষীরা।

জানা যায়, উপজেলার চরাঞ্চল বেস্টিত অর্জুনা, গাবসারা, গোবিন্দাসী ও নিকরাইল ইউনিয়নের যমুনা চরাঞ্চলে অন্যান্য ফসলের পাশাপাশি তিলের ব্যাপক আবাদ হয়েছে। যতদূর চোখ যায় চারিদিকে তিলের সবুজ গাছের সমাহার। সবুজ গাছগুলোতে তিলের ছেই ও সাদা ফুলে ভরে গেছে। বেশ কিছু অংশে তিল পরিপক্ক হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যেই তিল কাটতে শুরু করবে তিল চাষীরা। ফলন ভালো হওয়ায় খুশি এখানকার কৃষকরা।

এদিকে গত কয়েকদিনে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষণে যমুনার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার চরাঞ্চলের নিচু এলাকার তিল, কাউন, রাধুঁনী সজ সহ ফসলের জমি পানিতে তলিয়ে গিয়েছিল। নিচু জমির ফসলের কিছুটা ক্ষতি হলেও বন্যার আগেই তিল সহ উচুঁ জমির অন্যান্য ফসল ঘরে তুলতে পারবে চরাঞ্চলের কৃষকরা। এমনটাই মনে করছেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস। বর্তমানে যমুনার পানি কমতে শুরু করায় স্বস্তি ফিরে পেয়েছে তিল চাষীরা।

উপজেলার গাবসারা ইউনিয়নের যমুনা চরাঞ্চলের তিল চাষী আজমত আলী, চাঁন মাহমুন ও গফুর আলী সহ আরো অনেকে জানান, বিগত বছরের তুলনায় এবছর আমাদের চরাঞ্চলে তিলের আবাদ তুলনামূলকভাবে ভালো হয়েছে। তিল চাষ অত্যন্ত সহজ ও লাভজনক। জমির মাটি সমান করে বীজ ছিটানোর তিন মাস পর সেচ, সার, কীটনাশক ছাড়াই তিল ঘরে তুলতে পারি। তিল চাষে খরচ কম, লাভ বেশি। আশা করছি এবছর বিঘা প্রতি ৯ থেকে ১০ মন তিল পাবো। কৃষকরা আরো জানান, উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আমাদেরকে বিনামূল্যে উন্নত জাতের বীজ ও সার দিয়েছেন। এছাড়া কৃষি কর্মকর্তা ও উপ সহকারি কৃষি কর্মকর্তারা মাঠে এসে আমাদেরকে ভালো ফলন উৎপাদনের জন্য নিয়মিত পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন।

রামপুর গ্রামের তিল চাষী শুক্কুর আলী বলেন, আমি ছয় বিঘা জমিতে তিল চাষ করেছি। উচ্চ ফলনশীল তিলের বীজ ব্যবহারের কারণে ফলন অনেক ভালো হয়েছে। আশা করছি বিঘা প্রতি ৮ থেকে ১০ মন করে তিল পাবো। বাজারে দাম ভালো পেলে ছয় বিঘায় খরচ বাদে এক থেকে দেড় লাখ টাকা লাভ করতে পারবো।

এবিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ হুমায়ুন কবির জানান, চলতি বছরে উপজেলার চরাঞ্চলে তিল চাষীদের মাঝে বিনামূল্যে উন্নত ফলনশীল জাতের তিলের বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। উন্নত জাতের বীজ ব্যবহারের কারণে তিলের বাম্পার হয়েছে। আমরা মাঠ পর্যায়ে গিয়ে কৃষকদেরকে নিয়মিত পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি। এ বছর যমুনার চরাঞ্চলে ২ হাজার ৪৮০ হেক্টর জমিতে তিল চাষ হয়েছে। যার উৎপাদন লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে ২ হাজার ৮৪৬ মেট্টিকটন।

 

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT