রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১, ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১২:২৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ শেরপুর হাইওয়ে থানা পুলিশের উদ্যোগে ৭ই মার্চ জাতীয় দিবস উদযাপন ◈ পত্নীতলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চ উদযাপন ◈ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে দক্ষিণ আইচা থানায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ◈ বাঁশখালী প্রশাসনের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ◈ বাঁশখালীর কালীপুর ইউনিয়ন জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্ট কার্ড) বিতরণ অনুষ্ঠিত ◈ মনোহরগঞ্জ উপজেলা প্রাশাসনের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন ◈ কোটচাঁদপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালন ◈ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে শাহজাদপুর থানা পুলিশের আনন্দ উদযাপন ◈ ধামইরহাটে ৭ই মার্চ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শুদ্ধা নিবেদন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ◈ শাহজাদপুরে ৪ জুয়ারীসহ আটক ৬

বেহাল সড়ক মাছ চাষ করে প্রতিবাদ!

প্রকাশিত : ০৭:১৯ AM, ৪ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার ২৯৩ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

কুড়িগ্রামে নাগেশ্বরী উপজেলার কেদার ইউনিয়নের কচাকাটা বাজার সড়কের বেহাল দশায় মাছ চাষ ও ধানের চারা রোপণ করে প্রতিবাদ করেছে স্থানীয়রা। গতকাল বুধবার সকালে স্থানীয়রা সড়কটির কাদা মাটিতে ধানের চারা এবং ‘কচুরিপানাবেষ্টিত খালে’ মাছ ছেড়ে দিয়ে ‘এখানে ধান এবং মাছ চাষ করা হয়’ সাইনবোর্ড টানিয়ে দেয়।

সামান্য বৃষ্টিপাতে বড় বড় গর্তে পানি জমে পুকুরের মতো হয়ে যায় সড়কটি। কাদায় একাকার হয়ে চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় পথচারীদের। এদিকে গত কয়েক দিনের বৃষ্টিপাতে খানাখন্দে ভরা সড়কটিতে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। প্রতিবাদে সড়কের ‘খালে’ মাছ চাষ করে প্রতীকী প্রতিবাদ করেছে এলাকাবাসী।

কচাকাটা স্ট্যান্ড থেকে বাজারগামী সড়কটির এমন অবস্থায় ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে কচাকাটা বাজারের কয়েক শত ব্যবসায়ী, কচাকাটা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫ শতাধিক, কচাকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ শতাধিক, কচাকাটা কিন্ডারগার্টেনের ৫ শতাধিক শিক্ষার্থীসহ বাজারে আসা হাজার হাজার জনতা। দীর্ঘদিন এমন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে এ সড়কে যাতায়াতকারীগণ। কচাকাটা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের বিদ্যালয়ে যাওয়া-আসার একটি মাত্র রাস্তা। যেটি বছরের পর বছর কাদাপানিতে ভরে থাকে। ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

ব্যবসায়ী আবু সিদ্দিক, আব্দুর রশিদ, মিজানুর রহমান, রাহিমুল, আলী হোসেন, মজনুর রহমানসহ অনেকে জানান, রাস্তার এমন দশায় তাদের ব্যবসায় চরম ক্ষতি হচ্ছে। ভারী যানবাহন না চলায় বাড়তি ভাড়া গুনতে হচ্ছে।

কেদার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জানান, রাস্তাটির কিছু অংশ ইউনিয়ন পরিষদের তত্ত্বাবধায়নে পাকা করা হয়েছে। আরও কিছু অংশ পাকার চেষ্টা চলছে।

নাগেশ্বরী উপজেলা প্রকৌশলী বাদশা আলমগীর বলেন, সড়কটি সরকারের কোনো বিভাগের তালিকায় নেই। ফলে নিয়মিত বরাদ্দ দেওয়া সম্ভব হয় না। স্থানীয় চেয়ারম্যানের সহায়তায় এডিপির বরাদ্দে কিছুটা অংশ পাকা করা হয়েছে। এডিপি এবং এলজিএসপির বরাদ্দে বাকিটা পাকার জন্য চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছে বলে জানান এ প্রকৌশলী।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT