রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৮:২৭ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ ভিবিডি-গোপালগঞ্জের দায়িত্বে চিকিৎসা সম্পন্ন হলো অসহায় চম্পা রাণীর ◈ ধর্মপাশায় মাসিক স্কিল ল্যাব ট্রেনিং ও সিএসবিদের উপকরণ প্রদান ◈ করিমগঞ্জে চাঞ্চল্যকর অটোরিকশা চালক হত্যা মামলার আসামি বাবলুকে গ্রেফতার  ◈ মুন্সিগঞ্জে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান আলোচনা সভা ◈ পোরশায় এ্যাডভোকেসী ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত ◈ গোমস্তাপুরে ইয়াবাসহ ৩ জন গ্রেপ্তার ◈ একক কর্তৃত্বের ক্ষমতাধারী, নির্মম-অত্যাচারী প্রধান শিক্ষক ফরিদুলের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী মানবন্ধন ◈ নজরুলের নাম শিরোনাম কবিতার পটভূমি ◈ ভোলার ৯ গুণীর হাতে লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সম্মাননা তুলে দিলেন এমপি শাওন ◈ চরফ্যাসনে তেলের ট্যাংক ও বোরাকের সংঘর্ষঃ নিহত ১, আহত ৫

বিষধর সাপ খেলো সবুজ ব্যাঙ, ভাগ্য জানতে পর্যবেক্ষণ

প্রকাশিত : ০২:৪১ AM, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ Friday ১২৪ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

পৃথিবীর স্থলভাগে বিষধর সাপের তালিকায় ‘কোস্টাল টাইপান’র স্থান তৃতীয়। এ সাপের ছোবলে বড় বড় প্রাণী সহজেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। তবে সেই বিষধর সাপকে নিমিষেই জীবিত খেয়ে ফেলল একটি সবুজ গেছো ব্যাঙ। বিষধর সাপ খাওয়ার পর ব্যাঙের ভাগ্যে কি রয়েছে এ নিয়ে চলছে পর্যবেক্ষণ।-খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।
সংবাদমাধ্যমটি জানায়, অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যন্ডে ‘স্নেক টেক অ্যাওয়ে’ ও ‘চ্যাপেল পেস্ট কন্ট্রোল’নামে দুটি সংস্থা রয়েছে। ওই দুটি সংস্থা পরিচালনা করেন জেমি চ্যাপেল নামের এক ব্যক্তি। মঙ্গলবার কাজ শেষে বাড়ি ফেরার সময় চ্যাপেলের মোবাইলে ফোন দেন এক নারী। উৎকণ্ঠা নিয়ে তার বাড়িতে একটি বিষধর সাপ ঢুকে পড়ার খবর দেন। এতে চ্যাপেল সোজা ওই নারীর বাড়িতে হাজির হন। তিনি নারীর কাছে সাপের অবস্থান জানতে চান।

পরে ওই নারী তাকে সাপ দেখাতে বাড়ির পেছনে নিলে চ্যাপেলের চোখ চড়কগাছ। কারণ সেখানে সাপের পরিবর্তে একটি সবুজ গেছো ব্যাঙ বসে আছে। আর ব্যাঙটি ‘কোস্টাল টাইপান’সাপটিকে জীবিত অবস্থায় গিলে খাচ্ছে।

চ্যাপল জানান, সাপটি উদ্ধারের চেষ্টা করা হলেও ব্যাঙটি ছাড়তে রাজি ছিল না। তাই শেষ দেখতে অপেক্ষা করছিলেন। আবার তিনি ভাবছিলেন, বিষধর সাপ খেয়ে ব্যাঙের কি অবস্থা হবে। কিন্তু কোনো ভয়াবহ ঘটনা ঘটেনি। পরে সাপটিকে পুরো গিলে ফেলার পর একটি পাত্রে ব্যাঙকে ঢুকিয়ে বাড়িতে নেন তিনি। কয়েকদিন পর দেখা যায় ব্যাঙ আরামসে লাফালাফি করছে। তিনি শিগগিরই ব্যাঙটিকে মুক্ত করে দেবেন। তবে আরো কয়েকদিন পর্যবেক্ষণের কথা জানান। এ নিয়ে তিনি ফেসবুকে ছবিসহ পোস্ট করেছেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT