রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ১৭ মে ২০২১, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০৬:৪৪ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ লোহাগড়ায় ১৭ই মে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত ◈ কালিহাতী থানায় নতুন ওসির যোগদান ◈ ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ২৪০ বস্তা চাল জব্দ, আটক-১ ◈ নওগাঁর আত্রাইয়ে শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদককে প্রকাশ্য দিবালোকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা ◈ ঈদ প্রীতি ফুটবল ম্যাচ,বড় দল বনাম ছোট দল, বিশেষ আকর্ষণ দেশের দ্রুত তম মানব ইসমাইল ◈ বিরলে শেখ হাসিনা’র স্বদেশ-প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে যুবলীগের দোয়া ও খাদ্য বিতরণ ◈ বুড়িচং উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের মতবিনিময় সভা অনষ্ঠিত ◈ মতিন খসরু’র স্মরণ সভা ও পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত ◈ স্ত্রী কানিজ ফাতিমা হত্যায় আটক সেনা সদস্য স্বামী রাকিবুলের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ◈ বাঁশখালীতে বেড়াতে আসা তরুণীকে ধর্ষণ করে আবারো আলোচনায় সেই নূরু

বিশুদ্ধ পানির ফিল্টার নিজেই যখন রুগী

প্রকাশিত : ০২:৫৩ PM, ২৩ নভেম্বর ২০১৯ শনিবার ২৪৪ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

শামীম আহমেদ, স্টাফ রিপোর্টার :

পটুয়াখালী সদর হাসপাতালের পানির ফিল্টার নিজেই রুগী হয়েছে। প্রায় তিন মাস পূর্বে বর্তমান বাজার দরের প্রায় পাঁচ গুন বেশি দামে মোট ২৪টি পানির ফিল্টার রুগীদের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের লক্ষ্যে হাসপাতালের অফিস সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডে স্থাপন করা হয়। কিন্তু কিছু দিন না-যেতেই সবগুলো পানির ফিল্টার অকেজো হয়ে যায়। রুগী দের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের জন্য একটি মাত্র ডিপ টিউব ওয়েল ব্যবহার করতে হচ্ছে।

দেখা গেছে সে টিউবওয়েলটি বেশিরভাগ সময় নস্ট থাকে। ফলে রুগী দের ভোগান্তি চরমে পৌছেছে।

জানাগেছে প্রতিটি ফিল্টার বর্তমান বাজারে সর্বোচ্চ ১৩ হাজার টাকায় পাওয়া গেলেও অদৃশ্য কারনে প্রতিটি ফিল্টার প্রায় ৬৬ হাজার টাকায় ক্রয় করা হয়।

এ বিষয় সরবরাহকৃত ডিপার্টমেন্ট PWD বলছে কিছু দিন পূর্বে হাসপাতালের চাহিদা অনুযায়ী এগুলো সরবরাহ করা হয়েছে। এত তারাতারি অকেজো হওয়ার বিষয় কোন মন্তব্য করেনি। তবে তারা বলছে অভিযোগ পেলে ফিল্টার গুলো পরিবর্তন করা হবে। এ বিষয় ইতিপূর্বে বিভিন্ন গণমাধ্যমে রিপোর্ট প্রকাশ হোলেও অদৃশ্য কারনে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিরব ভূমিকা পালন করছে। পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে বরগুনা, কুয়াকাটা, কলাপাড়া গলাচিপা সহ প্রায় দুজেলার রুগীরা চিকিৎসা নিতে এখানে আসেন। ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল হোলেও এখানে রুগীর চাপ অনেক বেশি। হাসপাতালে পানির ফিল্টার সহ একাধিক সমস্যায় জর্জরিত,রুগী দের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা নেয়া সহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে হাসপাতালের বিরুদ্ধে।

এ বিষয় কথাবলতে চাইলে হাসপাতালের দায়ীত্বপ্রাপ্ত কোন কতৃপক্ষকে পাওয়া যায়নি।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছে এগুলো শুধুমাত্র কতৃপক্ষের অবহেলা ছারা কিছুই নয়। বিশেষজ্ঞরা আরও বলেন হাসপাতাল এমন একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান যেখানে মানুষ চিকিৎসা নিতে এসে ভালো হয়ে বাড়ী ফেরার কথা থাকলেও এখানে তেমনটা দেখা যায় না বরং গ্রামের নিরিহ গরীব রুগীরা আসলেই তাদেরকে বিভিন্ন ক্লিনিক বা বরিশাল হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। যা শুধুমাত্র কতৃপক্ষের অবহেলা ।

এ ছারা ডাঃ সেলিম মাতুব্বর কোন মারামারির রুগী আসলেই তাদেরকে বাধ্যতা মূলক সিটিস্ক্যান করায়। যা গরীব অসহায় রুগীদের পক্ষে অসম্ভব হলেও করাতে বাধ্য করে। এ ছারা ডাঃ সহ একধরনের অসাধু কর্মচারিরা বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা করাতে বাধ্য করে, বিষয়টি এখনই সমাধান করা নাহলে আগামীতে আরও ক্ষতির সম্মুখীন হবেন খেটে খাওয়া গ্রামের অসহয় দরিদ্র জনগোষ্ঠী।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT