রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শুক্রবার ০৭ মে ২০২১, ২৪শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ কোম্পানীগঞ্জে জেলেদের মাঝে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ ◈ ফরিদগঞ্জে প্রতিবন্ধী বৃদ্ধাকে ধর্ষণ করলো এক যুবক ◈ বরগুনার আমতলী থানা হতে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী র‌্যাব-৮, সিপিসি-১ (পটুয়াখালী ক্যাম্প) কর্তৃক গ্রেফতার ◈ ধামইরহাটে কাপড় ও মুদি দোকানে মোবাইল কোর্টে জরিমানা ◈ মৌলভীবাজারে শেষ হলো ভোক্তা অধিদপ্তরের বিশেষ সেবা সপ্তাহ; জরিমানা ৬৯ হাজার টাকা ◈ নরসিংদীর বেলাবতে এজাহার ভোক্ত আসামী গ্রেফতারঃ ◈ তাহিরপুরে বালুপাথর সহ ট্রাক,ষ্টীল বডি নৌকা ও ভারতীয় মদ ও কয়লা আটক ◈ কোটচাঁদপুর পৌর মেয়র নিজ অর্থায়নে ২নং পৌর ওয়ার্ডে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন ◈ তাহিরপুরে চুরিতে বাঁধা দেওয়ায়,চোরের ছুরিঘাতে গ্রাম পুলিশ নিহত ◈ বুড়িচংয়ে আলী আহাম্মদ ফাউন্ডেশনের ঈদ উপহার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

বিকল্প পেঁয়াজ চিভস

প্রকাশিত : ০৫:৩২ AM, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ সোমবার ১৬৮ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

সুখবর বটে! দেশের রন্ধনশালা তথা ১৭ কোটি মানুষের জন্য এটা চমৎকার খবর! পেঁয়াজের বিকল্প হবে চিভস। তরকারিতে এই চিভসের ব্যবহার ভারতের ওপর পেঁয়াজ আমদানির নির্ভরতা কমিয়ে দেবে। তরকারিও হবে সুস্বাদু। এ ছাড়াও এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ভিটামিন বি-১, ভিটামিন বি-২, নায়াসিন, ক্যারোটিন ও খনিজ উপাদান। এই সুখবর দিয়েছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মসলা গবেষণা কেন্দ্র। জানতে চাইলে বিজ্ঞানী ড. রুম্মান আরা জানান, তিনি নিজেও চিভস তরকারিতে ব্যবহার করেছেন। এর স্বাদ ও গন্ধ প্রায় পেঁয়াজ ও রসুনের মতো। এর অনেক গুণাগুণ আছে। স্যুপ, সালাদ, তরকারি ও চাইনিজের ভেজিটেবল আইটেমে এটি ব্যবহার করা যায়।

গাজীপুর অবস্থিত বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মসলা গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মু. শহীদুজ্জামান বলছেন, চিভসের স্বাদ পুরোপুরি না হলেও অনেকটা পেঁয়াজের মতোই। তবে এটিতে পেঁয়াজের মতো গুটি বা দানা হয় না। শুধু পাতাজাতীয় ফসল।

ভারতের পেঁয়াজের ওপর নির্ভরশীলতা বিপর্যয়কর অবস্থায় ফেলেছে বাংলাদেশের ভোক্তাদের। হঠাৎ করে ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়ে বাংলাদেশের সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলে দিয়েছে। কোনোভাবেই দেশে উৎপাদিত এই পণ্য দিয়ে ভোক্তা চাহিদা পূরণ করা যাচ্ছে না। যার কারণে বাধ্য হয়েই কার্গো বিমানে করে তুরস্ক ও মিসর থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে।

দাম কয়েকগুণ বেড়ে যাওয়ায় রসুইঘরের মসলাজাতীয় সবজি পেঁয়াজ এখন টক অব দ্য কান্ট্রি। তরকারিতে এই পণ্য অপরিহার্য হওয়ায় ৩০ টাকা কেজি দরের পেঁয়াজ ২৫০ টাকায় ভোক্তাদের ক্রয় করতে হচ্ছে। পেঁয়াজের বাজার যখন লাগামহীন, তখন এর বিকল্প হিসেবে চিভস নামে পাতাজাতীয় এক ধরনের মসলা ব্যবহারের চিন্তাভাবনা চলছে। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবিত এই মসলাজাতীয় ফসল নিয়ে ব্যাপক আলোচনা এবং পরীক্ষা-নিরীক্ষা হচ্ছে। বাংলাদেশের আবহাওয়া উপযোগী হওয়ায় সারা বছর ধরেই চিভ চাষাবাদ ও ব্যবহার করা যাবে। আর তাতে করে পেঁয়াজের ওপরও চাপ কমবে। এমনটিই জানিয়েছেন মসলা গবেষকরা।

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মসলা গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মু. শহীদুজ্জামান চিভস সম্পর্কে বলছেন, এর মাটির ওপরের অংশই খাওয়া যায়। এর চারা লাগানোর ৬৫-৭০ দিনের মধ্যে ফসল সংগ্রহ শুরু হয়। বছরে ৪-৫ বার ফসল উত্তোলন করা সম্ভব। এর পাতা, কান্ড ও কাঁচা ফুল তরকারির মসলা হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এ মসলার চাষযোগ্য উচ্চফলনশীল জাত বারি চিভস-১ জাত ইতিমধ্যেই অবমুক্ত করা হয়েছে।

বিজ্ঞানীরা জানান, চিভস উৎপাদন এখন একটা স¤প্রসারণ পর্যায়ে রয়েছে। খুবই সহজে এবং তুলনামূলক কম খরচে এটি চাষাবাদ করা যায়। একবার পাতা-কান্ড কেটে নিলে আবার গজায়। হলুদ ও আদার মতোই বাড়ির আঙিনায় বা টবেও চিভস চাষাবাদ করা যায়। দেশের সব অঞ্চলের উঁচু অঞ্চলে এটি চাষাবাদ সম্ভব বলে জানান বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. আবুল কালাম আযাদ। তিনি বলেন, পেঁয়াজের বিকল্প হিসেবে এই চিভস জাতের অবমুক্ত করা হয়েছে ২০১৭ সালে। এটা ব্যবহার করে পেঁয়াজের চাহিদা অনেকটা কমানো সম্ভব। এর উৎপাদনও অনেক সহজ। চিভসের গুণাগুণ হলো এটা হজমে সাহায্য করে এবং বিভিন্ন রোগ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। এছাড়া এতে ক্যান্সার প্রতিরোধী গুণাগুণ রয়েছে। এতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ভিটামিন বি-১, ভিটামিন বি-২, নায়াসিন, ক্যারোটিন ও খনিজ উপাদান। এর পাতা লিনিয়ার আকৃতির, ফ্লাট, কিনারা মসৃণ, বাল্ব লম্বাটে। এটি সাধারণত উৎপাদিত হয়ে থাকে সাইবেরিয়া-মঙ্গোলিয়া ও নর্থ-চায়না অঞ্চলে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT