রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

রবিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বাড়লো জাতীয় পুরস্কারের অর্থের পরিমাণ

প্রকাশিত : 04:35 AM, 22 November 2019 Friday ৪৫ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :
alokitosakal

আবারো বাড়লো রাষ্ট্রীয় বা জাতীয় পুরস্কারের অর্থের পরিমাণ। অর্থের পরিমাণ বাড়িয়ে বৃহস্পতিবার সংশোধিত ‘জাতীয় পুরস্কার/পদক সংক্রান্ত নির্দেশাবলী’ প্রকাশ করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

জাতীয় পুরস্কার হলো- স্বাধীনতা পুরস্কার, একুশে পদক, বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার, বেগম রোকেয়া পদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার। ২০১৭ সালের ১৫ মে মাসে জাতীয় পুরস্কার/পদক সংক্রান্ত নির্দেশাবলী সংশোধন করে অর্থের পরিমাণ বাড়ানো হয়েছিল।

বেসামরিক সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার হচ্ছে স্বাধীনতা পদক। এ ক্ষেত্রে পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে আগে স্বর্ণের পদকের সঙ্গে তিন লাখ টাকা দেয়া হতো। আগামী বছর থেকে দেয়া হবে পাঁচ লাখ টাকা।

এছাড়া আগের মতোই থাকছে আঠারো ক্যারেট মানের পঞ্চাশ গ্রাম স্বর্ণের পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা ও একটি সম্মাননাপত্র। এ পদক দেয় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার হচ্ছে একুশে পদক। এ ক্ষেত্রে দুই লাখ টাকার সঙ্গে দেয়া হতো আঠারো ক্যারেট মানের পঞ্চাশ গ্রাম স্বর্ণের পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা ও একটি সম্মাননাপত্র। এখন আরো দুই লাখ বাড়িয়ে চার লাখ টাকা দেয়া হবে। তবে পদকে স্বর্ণের পরিমাণ কমিয়ে ৩৫ গ্রাম করা হয়েছে। এ পদক দেয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার দেয় কৃষি মন্ত্রণালয়। এ পুরস্কার ‘বঙ্গবন্ধু কৃষি পুরস্কার ট্রাস্ট আইন’ অনুযায়ী নির্ধারিত হবে বলে নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

বেগম রোকেয়া পদকের ক্ষেত্রে আগে অর্থের পরিমাণ ছিল দুই লাখ টাকা। এখন তা বেড়ে হয়েছে চার লাখ টাকা। এছাড়া আগের মতোই আঠারো ক্যারেট মানের পঁচিশ গ্রাম স্বর্ণের পদক, পদকের রেপ্লিকা ও একটি সম্মাননাপত্র থাকছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ পুরস্কার দেয়।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার দিয়ে থাকে তথ্য মন্ত্রণালয়। এ ক্ষেত্রে আঠারো ক্যারেট মানের পনের গ্রাম স্বর্ণের একটি পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা, একটি সম্মাননাপত্র দেয়া হয়। একই সঙ্গে থাকে অর্থ।

এখন থেকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ক্ষেত্রে আজীবন সম্মাননাপ্রাপ্তকে তিন লাখ টাকা। শ্রেষ্ঠ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালককে দুই লাখ টাকা করে দেয়া হবে। অন্য ক্ষেত্রে এক লাখ টাকা করে দেয়া হবে।

আগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ক্ষেত্রে আজীবন সম্মাননাপ্রাপ্তকে দেড় লাখ টাকা দেয়া হতো। এছাড়া শ্রেষ্ঠ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, চলচ্চিত্র পরিচালককে এক লাখ টাকা করে দেয়া হতো। অন্যান্য ক্ষেত্রে দেয়া হতো ৫০ হাজার টাকা।

জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের ক্ষেত্রে এখন দেয়া হবে এক লাখ টাকা করে। আগে ৫০ হাজার টাকা দেয়া হতো। এ ছাড়া আগের মতো আঠারো ক্যারেট মানের পঁচিশ গ্রাম স্বর্ণের পদক, একটি সম্মাননাপত্র থাকছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT