রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ২৬ জুলাই ২০২১, ১১ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

১২:১৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ নিকারে মধ্যনগর থানা উপজেলায় উন্নীত হতে পারে , এমপি রতনের ফেইসবুক স্ট্যাটাস ◈ সাহিত্য সকাল : ২৫ জুলাই ২০২১ ◈ সি‌দ্ধিরগ‌ঞ্জে শীতলক্ষ্যা পাড়ে প্রশাস‌নের অভিযান ◈ মোহনগঞ্জে ডাঃ আখলাকুল হোসাইন আহমেদ স্মৃতি গ্রন্থাগারের উদ্বোধন ◈ গোপালপুরে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক খাদ্য সহায়তা বিতরণ ◈ ছাতকে লকডাউন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পুলিশ, সেনা বাহিনী কঠোর অবস্থানে রয়েছে ◈ বগুড়ায় কাভার্ড ভ্যান চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ◈ বগুড়া শেরপুরে ফেন্সিডিলসহ গ্রেপ্তার ১ ◈ পোরশায় পরকীয়ায় জড়িয়ে স্ত্রী শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করলেন স্বামীকে ◈ পোরশা মিনা বাজারে কোভিড(১৯) ভ্যাকসিন ফ্রী নিবন্ধন বুথ উদ্বোধন করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

বারইপাড়া সেতু নির্মাণে কচ্ছপ গতি

প্রকাশিত : ০২:২৪ AM, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার ১৮০ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

কচ্ছপ গতিতে চলছে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নবগঙ্গা নদীর ওপর সেতু নির্মাণকাজ। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অবহেলার কারণে চলতি বছরের জুন মাসের মধ্যে নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও হয়েছে মাত্র ২২ ভাগ। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি মাত্র দুটি খুঁটি নির্মাণ করতে সক্ষম হয়েছে নির্ধারিত সময়ে। নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় ক্ষুব্ধ এ পথ দিয়ে চলাচলকারী মানুষ। ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্যও।

জানা গেছে, নড়াইলের কালিয়া উপজেলার বারইপাড়া ঘাটে সেতু না থাকায় উপজেলাটি দুই ভাগে ভাগ হয়ে ছিল। নদীর একপাশে রয়েছে আটটি অপর প্রান্তে ছয়টি ইউনিয়ন। জেলা সদরের সঙ্গে কালিয়া উপজেলার সরাসরি যোগাযোগের কোনো ব্যবস্থা নেই। কালিয়া উপজেলাকে নড়াইল জেলা সদর থেকে বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে এ নদী।

জেলা সদরের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ ব্যবস্থা না থাকায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হত এ উপজেলার মানুষের। সরাসরি যোগাযোগ স্থাপনের জন্য কালিয়ার বারইপাড়া ঘাটে একটি সেতু নির্মাণ এলাকাবাসীর প্রাণের দাবি ছিল।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ ইমতিয়াজ হোসেন রতন সেতুর নকশা জটিলতার কারণে নির্মাণকাজ বিলম্ব হয়েছে জানিয়ে খোলা কাগজকে বলেন, ইতোমধ্যে ২২ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। এক বছর সময় বাড়ানো হয়েছে।

নড়াইল সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন খোলা কাগজকে বলেন, ঠিকাদার মইনুদ্দীন বাসী ও জামিল ইকবাল যৌথভাবে সেতুটি নির্মাণ করছেন। প্রায় ৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে দৈর্ঘ ৬৫১.৮৩ মিটার এবং ১০.২৫ মিটার প্রস্থ সেতুটির কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছিল ২০১৮ সালের ৮ মার্চ। ২০১৯ সালের জুন মাসের মধ্যে নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি। জুন মাস পর্যন্ত প্রায় ২৩ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

নকশা জটিলতায় কাজ শুরু হতে বিলম্ব হয় জানিয়ে তিনি বলেন, সেতু নির্মাণ কাজ শেষ করার জন্য ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত এক বছর সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে। আশা করছি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ হবে।

নড়াইল-১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি খোলা কাগজকে বলেন, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কাজের ধীরগতি এবং গাফিলতির কারণে নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে পারেনি। আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি দ্রুত সেতুর কাজ শেষ করার জন্য।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT