রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১লা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০৮:০৬ পূর্বাহ্ণ

বন্ধু এমনও হয়!

প্রকাশিত : ০৭:১৪ AM, ৩ নভেম্বর ২০১৯ রবিবার ১৬৯ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

বন্ধুকে কাজে পাঠিয়ে তার স্ত্রীকে ধর্ষণ করলো অপর বন্ধুরা। এমন নিকৃষ্ট ঘটনা ঘটেছে চুয়াডাঙ্গায়। কিশোরগঞ্জে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে প্রতিবন্ধী কিশোরী। রাজধানীর হাজারীবাগে প্রেমের ছলে নারী শ্রমিককে গণধর্ষণের খবর পাওয়া গেছে। পটুয়াখালীতে বউয়ের অনুপস্থিতিতে পরকীয়া প্রেমিকাকে ডেকে এনে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে, মণিরামপুরে ঘের মালিকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিসহ বিভিন্ন স্থানে ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
ঢাকা : রাজধানীর হাজারীবাগে একটি নির্মাণাধীন ভবনে এক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক তিনজন হলেন-রনি (২১) নাজির (২০) ও সাগর (২১)।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ১৮ বছরের ওই তরুণীর সঙ্গে রনি নামে এক ছেলের পরিচয় সূত্রে পড়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই তরুণী হাজারীবাগ এলাকার একটি কারখানায় চাকরি করেন। গত শুক্রবার দিনগত রাত ৯টার দিকে রনি মেয়েটিকে প্রেমের ছলে হাজারীবাগ বালুরমাঠ কামাল সদর রোড এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে গিয়ে রনি মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন। এর পরপরই রনির সঙ্গে থাকা তার বন্ধু নাজির তাকে ধর্ষণ করেন। দু’বন্ধু ধর্ষণের পর পাহারায় থাকা আরেক বন্ধু সাগর ধর্ষণ করতে গেলে মেয়েটির সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয়। একপর্যায়ে সাগর মেয়েটিকে ধাক্কা দিয়ে ফ্লোরে ফেলে দেয়। এর পরপরই তিনজন ঘটনাস্থল থেকে দ্রæত পালিয়ে যায়। ওই তরুণী কান্না শুনে আশ-পাশের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে যায় এবং থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে। তরুণীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাতেই অভিযান চালিয়ে ওই তিনজনকে আটক করা হয়।

হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকরাম আলী মিয়া জানান, আটক দু’জন রনি ও নাজির ধর্ষণের কথা প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছেন। সাগর বলেছেন তিনি পাহারায় ছিলেন। ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। এই অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা প্রক্রিয়াধীন। এ মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার দেখানো হবে।
চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গায় স্বামীর অনুপস্থিতিতে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর দুই বন্ধুর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে সদর উপজেলার যদুপুর গ্রামে। বর্তমানে ওই গৃহবধূকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে থানায় মামলা হওয়ার পর অভিযুক্ত ওয়াশিম আলী (৩০) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ওয়াশিম আলী একই গ্রামের মৃত জাফর মÐলের ছেলে।
পুলিশ জানায়, গত বুধবার রাতে গৃহবধূর স্বামী ব্যবসায়ীক কাজে বাড়ির বাইরে ছিল। এ সুযোগে স্বামীর দুই বন্ধু একই গ্রামের মিলন ও ওয়াশিম ওই গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় পার্শ্ববর্তী একটি কলাবাগানে। সেখানে তাকে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ করে তারা। এক পর্যায়ে গৃহবধূ অচেতন হয়ে পড়লে তাকে রেখে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। পরে পরিবারের অন্য সদস্যরা বিষয়টি টের পেয়ে গৃহবধূকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

নির্যাতিতা স্বামীর অভিযোগ, মিলন ও ওয়াশিমের সঙ্গে তার ভালো সখ্যতা ছিল। সে সূত্রে অভিযুক্তরা পরিকল্পনা করে তাকে কৃষিপণ্য বিক্রির জন্য যশোরে যেতে বাধ্য করে। রাতে ফিরে আসতে না পারায় সে সুযোগে তার স্ত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে তারা। বাড়ি ফিরলে বিষয়টি খুলে বলে তার স্ত্রী।
কিশোরগঞ্জ : কিশোরগঞ্জে এক বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগে অঞ্জন মিয়া (৩৮) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মোল্লাপাড়া বগাদিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার অঞ্জন মিয়া মোল্লাপাড়া বগাদিয়া এলাকার মুসলিম মিয়ার ছেলে।
কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার মেয়েটির মা বাদী হয়ে গত শুক্রবার রাতে অঞ্জন মিয়াকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
পটুয়াখালী : নিজের বউ গিয়েছিলেন বাপের বাড়ি। এই সুযোগে রাজিব নামের এক ব্যক্তি নিজের বাড়িতে নিয়ে এলেন পরকীয়া প্রেমিকাকে। সেই প্রেমিকাও বিবাহিত। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে আটকে রেখে দুইদিন ধরে রাজীব ধর্ষণ করেন নিজ প্রেমিকাকে। পরে খবর পেয়ে শুক্রবার (১ নভেম্বর) পুলিশ ঐ নারীকে উদ্ধার করে। ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা থানায়।
পুলিশ ও মামলার বিবরণে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে গলাচিপা উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়নের পূর্ব আটখালী গ্রামের মৃত আলী আকবরের ছেলে রাজিব বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান। রাজিবের স্ত্রী বাপের বাড়ি থাকার সুযোগে গৃহবধূকে নিয়ে গিয়ে দুই দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণ করেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার মোর্শেদ বলেন, ‘ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ধর্ষণের প্রধান আসামি রাজিবকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্য আসামিকে ধরার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

যশোর : মণিরামপুরে এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় ঘের মালিক ভগিরথ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। কিশোরীর মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে থানায় এ মামলা দায়ের করেন। ইতোমধ্যে পুলিশ কিশোরীকে উদ্ধার করেছে। তবে পুলিশ এখনও ধর্ষক ঘের মালিক ভগিরথকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
কিশোরীর বিধবা মা এবং কাকিমা জানায়, গত সপ্তাহে ওই কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে খুলনার একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। সেখানে পরীক্ষা-নীরিক্ষার পর ডাক্তার জানান, সে চারমাসের অন্তঃসত্ত¡া। ফলে লোকলজ্জার ভয়ে তার পেটের বাচ্চা নষ্ট করা হয়। এ ঘটনা জানাজানি হলে ভগিরথের পক্ষ থেকে তার ছোটভাই অনাথ বিশ্বাস কিশোরীর মা এবং কাকিমার সঙ্গে আলোচনা করে মীমাংসার জন্য।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT