রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৯:১৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ লক্ষ্মীপুর জেলার শ্রেষ্ঠ ও‌সির পুরস্কার পে‌লেন ও‌সি আবদুল জ‌লিল ◈ কাতার সেনাবাহিনীর বিপক্ষে বাংলাদেশের পরাজয় ◈ সম্প্রীতির হবিগঞ্জ সংগঠনের জেলা শাখার সিনিয়র সদস্য নির্বাচিত হলেন শাহিনুর রহমান ◈ ডুমুরিয়ায় আওয়ামীলীগ নেতা গাজী আব্দুল হাদি’র স্মরণ সভা ◈ নারায়ণগ‌ঞ্জে ক‌রোনা প্রতি‌রো‌ধে স‌চেতনতামূলক র‌্যা‌লি ◈ তিন লাখের ঘরে সুপারস্টার শাবনূর ◈ কুড়িগ্রাম সদর থানার নতুন ওসিকে ফুলের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন ◈ কুড়িগ্রামে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে স্বাস্থ্য-পরিদর্শকদের কর্মবিরতী ◈ অবশেষে মুক্তাগাছার প্রসিদ্ধ মন্ডার মূল্য স্থিতিশীল হলো ◈ বাকৃবি আম বাগানে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা
জেলার রাজনীতি বগুড়া

বগুড়ায় সরব আওয়ামী লীগ দল গোছাতে ব্যস্ত বিএনপি

প্রকাশিত : ০৭:১৪ AM, ৩ নভেম্বর ২০১৯ Sunday ১৮৮ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

বগুড়ায় গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকেই বৃহৎ দুটি রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির রাজনীতিতে নানা কারণে বেহাল অবস্থা চলছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে সমন্বয়হীনতা ও অভিভাবকশূন্যতা বিরাজ করছে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ উদ্দীনের ইন্তেকালের পর থেকে। সামনে কেন্দ্রীয় সম্মেলন উপলক্ষে উপজেলাগুলোতে কর্মিসভার দিনক্ষণও ঠিক করা হয়েছে। তবে এক সময় বগুড়াকে বিএনপির ঘাঁটি বলা হতো। বগুড়া সদর আসন উপনির্বাচনের ফসল বিএনপির দখলেই রয়েছে। দল গোছাতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন বিএনপির নেতারা। জেলায় জাতীয় পার্টির অবস্থা বেশ নাজুক।

কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলন ও জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার আগে জেলা আওয়ামী লীগও ছিল ভিন্ন রকম। সম্মেলনের পর জেলা আওয়ামী লীগের পালে হাওয়া লেগেছে। আর নতুন কিছু মুখ নিয়ে গঠিত হয়েছে জেলা আওয়ামী লীগ। ছাত্রলীগের একাধিক সাবেক নেতা এখন জেলা আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে স্থান পেয়েছেন। আওয়ামী লীগে যারা দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন পদ আঁকড়ে ধরে পড়েছিলেন তাদের কেউ কেউ মনক্ষুণ্ন হলেও তারুণ্যনির্ভর দল নিয়ে চাঙ্গাভাবে সময় পার করছে জেলা আওয়ামী লীগ। তবে

তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠনের শক্তি বৃদ্ধি বা সরকারের সফলতা তুলে ধরতে নেতাকর্মীদের দেখা যায় না। জেলা নেতাদের নিয়ন্ত্রণ নেই অঙ্গ সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীদের ওপর। বিভিন্ন কায়দা-কৌশলে কিছু নেতা রাতারাতি আঙুল ফুলে কলাগাছে পরিণত হয়ে গেছেন। তবে তৃণমূলে সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড নেই এ কথা মানতে নারাজ দলীয় নেতারা।

জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা মাশরাফি হিরো বলেন, আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনকে সামনে রেখে জেলার সব উপজেলায় কর্মিসভার সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে এবং প্রচারণা চলছে তৃণমূল পর্যায়েও। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান মজনু বলেন, আওয়ামী লীগ আগের চেয়ে এখন অনেক শক্তিশালী। দলকে আরও সংগঠিত করা হয়েছে। সবাই শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ।

জাতীয় সংসদের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী জিএম সিরাজের বিজয় বগুড়ার বিএনপি নেতাকর্মীদের আশার আলো জাগিয়েছে। বিগত সময়ে ভাঙচুর ও নাশকতামূলক কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মামলা-হামলায় এক রকম নূয়ে পড়া জেলা বিএনপির পালেও কিছুটা হাওয়া লেগেছে।

মামলায় গ্রেফতার আতঙ্কে পালিয়ে থাকা বিএনপির কিছু কিছু নেতাকর্মী জামিন পেয়ে প্রকাশ্যে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছেন। অনেকেই আবারও মিছিল-মিটিং এবং দলীয় কর্মসূচিতেও সক্রিয় হয়ে উঠছেন। দলের নেতাকর্মীর সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে আবারও চাঙ্গা হয়ে উঠতে শুরু করেছে জেলা বিএনপি। ঘরোয়া কর্মসূচির মধ্য দিয়েই তারা সংগঠিত হওয়ার চেষ্টা করছে। উপজেলা পর্যায়ে সংগঠনের কার্যক্রম ঝিমিয়ে পড়েছে। জেলা বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল সংবর্ধনা ও দোয়া মাহফিলসহ দলীয় কর্মসূচি পালন করলেও মাঠে দেখা যায় না ছাত্রদলকে। শুধু জেলা বিএনপির আহ্বায়ক জিএম সিরাজের নেতৃত্বে দল দীর্ঘদিন পর সুসংগঠিত হচ্ছে। আর এক সময় দলের সুযোগ-সুবিধাভোগীরা এখন দলের সাংগঠনিক কাজ বাদ দিয়ে নিজেদের ব্যবসা-বাণিজ্য নিয়ে ব্যস্ত। এক যুগ আগে ছাত্রত্ব শেষ হওয়া অথবা বিবাহিতরা এ দলের কমিটিতে রয়েছেন। তবে তাদের কোনো কর্মসূচিতে দেখা যায় না।

অন্যদিকে বগুড়া জেলা ছাত্রদল সভাপতি সাধারণ সম্পাদক দীর্ঘদিন ধরে জেলার বাইরে অবস্থান করছেন। জেলা ছাত্রদলের নতুন কমিটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন তৃণমূল ও তরুণ কর্মীরা।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক জিএম সিরাজ সময়ের আলোকে বলেন, সাংগঠনিকভাবে বিএনপি আগের চেয়ে আরও বেশি শক্তিশালী। সব অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সক্রিয় করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

অন্যদিকে জেলার দুটি আসনে জাতীয় পার্টির এমপি থাকলেও বগুড়া সদর ও শিবগঞ্জ ছাড়া অন্য কোনো উপজেলায় জাতীয় পার্টির কার্যক্রম চোখে পড়ে না। বগুড়া সদর উপজেলায় কাজ করে যাচ্ছে জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সাবেক এমপি নুরুল ইসলাম ওমর। তবে তৃণমূল নেতাকর্মীদের দাবি বড় নেতারা জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে ভুল করেও আর পা রাখেন না। সিনিয়র নেতারা যেন ঈদের চাঁদ।

অঙ্গ সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক পার্টি ও ছাত্রসমাজ ছাড়া বাকিগুলো চোখে পড়ে না। তবে জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে সমন্বয়হীনতার অভিযোগও রয়েছে। এ ছাড়া বগুড়া-২ (শিবগঞ্জ) এলাকায় ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে সংগঠন শক্তিশালী করতে মাঠে নড়বড়ে কাজ করছেন জেলা জাপার সভাপতি শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ এমপি। বিভিন্ন ইউনিয়নে নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় ও কর্মিসভা করছেন। নিজের শ্যালক, সন্তান আর ঘনিষ্ঠ কয়েকজনকে নিয়েই চলছে জাপার রাজনীতি। কিছু এলাকায় জাপা অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে।

জেলা জাপার সাংগঠনিক সম্পাদক, লূৎফর রহমান স্বপন সময়ের আলোকে বলেন, ২০১৬ সালের পর থেকে জাপার সাংগঠনিক কার্যক্রম বন্ধ। যা চলে শুধু নামে। কোনো উপজেলা অথবা ওয়ার্ডে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু নেতাকর্মী জানান, সাবেক এমপি নুরুল ইসলাম ওমর সংসদ সদস্য থাকাকালে নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করেননি। বরং তাদের আখের গোছানো নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। ফলে এখন নেতাকর্মীদের কর্মসূচিতে পাওয়া যায় না। নেতাকর্মীদের দাবি সংগঠনে নেতৃত্বে আসুক নতুন মুখ।

তবে জেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ওমর সময়ের আলোকে বলেন, বগুড়ায় জাপার সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করতে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। আগামী ৩০ নভেম্বর জেলা জাপার প্রতিনিধি সভা ডাকা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় জাপার প্রাদেশিক সম্পাদক ও বগুড়া-৩ (দুপচাঁচিয়া-আদমদিঘী) আসনের এমপি নুরুল ইসলাম তালুকদার সময়ের আলোকে বলেন, আমার নির্বাচনি আসন দুপচাঁচিয়া ও আদমদিঘী উপজেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এরপর থেকে কার্যক্রম চলছে। তবে জাতীয় পার্টির স্থানীয় কিছু নেতা অভিযোগ করে বলেন, জাতীয় পার্টিসহ অঙ্গ সংগঠনের কমিটি গঠন করা হয়েছে কাগজে-কলমে, কিন্তু সংগঠনের তেমন কার্যক্রম নেই।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT