রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বুধবার ১৬ জুন ২০২১, ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০৮:২১ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ বিলাইভ মিউজিক স্টেশন থেকে আগামী রবিবার আসছে রাহিব খানের ❝তুই আশিকি❞ ◈ আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন সংগঠক মোস্তফা কামাল মাহদী ◈ বিএসআরএফ দপ্তর সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় মোসকায়েত মাশরেককে শুভেচ্ছা ◈ ঠাকুরগাঁওয়ে ধর্ষন মামলা আসামীকে পুলিশের সহযোগীতার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ◈ ঘাটাইল লক্ষিন্দর ইউনিয়নে টাকা ছাড়া হয় না ভাতা কার্ড ◈ রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের উদ্যোগে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উদযাপন ◈ জাগ্রত আছিম গ্রন্থাগারের উদ্যোগে স্থানীয় মাদ্রাসায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন ◈ কালিহাতীতে বাড়ছে করোনা, সামাজিক সচেতনতায় ইউএনও’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ অব্যাহত ◈ মুক্তাগাছায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৭ জনের জেল ◈ রায়পুরায় ট্রেনের সাথে প্রাইভেটকারের ধাক্কা, ঘটনার ৬ দিনপর এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

বগুড়ায় বিপুল পরিমাণ টাকার টুকরো নিয়ে তুলকালাম কান্ড

প্রকাশিত : ০৬:৪১ PM, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার ৩৩০ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

বগুড়ার শাজাহানপুরের এক গ্রামে রাস্তা ও বিলের ধারে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফেলে দেওয়া বিপুল পরিমাণ টাকার টুকরো নিয়ে তুলকালাম কাণ্ড ঘটেছে।

শাজাহানপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, উপজেলার খাড়ুয়া ব্রিজ এলাকার চান্দাই গ্রামে রাস্তার পাশে কুচি কুচি করে কাটা টাকার টুকরো পড়ে থাকার খবরে স্থানীয়রা সেখানে ভিড় জমায়। সাধারণ মানুষের মধ্যে শুরু হয় নানা জল্পনা-কল্পনা। কেউ ধরা পড়ার ভয়ে এভাবে অবৈধ টাকা নষ্ট করেছে কি না সেই প্রশ্নও ঘুরতে থাকে সাধারণের কথায়। পরে সেখানে পুলিশ গিয়ে জানতে পারে, সেগুলো বাংলাদেশ ব্যাংকের ফেলে দেওয়া বাতিল টাকার নোট। বগুড়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক জগন্নাথ ঘোষ জানান, নষ্ট হয়ে যাওয়া বা বাতিল টাকার নোট কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী নষ্ট করে ফেলা হয়।

“আগে এসব নোট পুড়িয়ে ফেলা হত। কিন্তু পরিবেশ অধিদপ্তর বলেছে, তাতে পরিবেশ দূষণ ঘটে। তাই এখন ১০০ থেকে ১০০০ টাকার নোট মেশিনে কুচি কুচি করে কেটে ফেলা হয়। পরে আমরা তা পৌরসভার মাধ্যমে ফেলে দেওয়ার ব্যবস্থা করি।” বাংলাদেশ ব্যাংকের এই কর্মকর্তা জানান, তাদের কাছে ১৮০০ বস্তা বাতিল নোটের টুকরো জমা আছে। তার মধ্যে ২৪০ বস্তা গত রোববার সন্ধ্যায় পৌরসভার ট্রাকে করে খাড়ুয়া ব্রিজের কাছে ফেলা হয়। এর মধ্যে ১০০, ৫০০ ও ১০০০ টাকার বাতিল নোট ছিল।

বগুড়া পৌরসভার গাড়ি চালক মাসুদ জানান, তিনি এবং আতাউল ও শহীদুল নামে আরও দুই চলক মিলে তিনটি ট্রাকে করে বাতিল টাকার বস্তা ওই এলাকায় ফেলে এসেছেন। বাড়ি ওই এলাকায় হওয়ায় তারা বস্তা ফেলার জন্য ওই এলাকা বেছে নিয়েছেন বলে জানান।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT