রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ০৬ জুলাই ২০২০, ২২শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ ভালুকায় মামার হাতে ৫ বছরের শিশু ভাগ্নী খুন ◈ শাহজাদপুরে সাংবাদিকদের মাঝে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সরঞ্জাম বিতরণ ◈ গংগাচড়ায় মসজিদ ও মন্দির পরিচালনা কমিটির মাঝে এমপির চেক বিতরণ ◈ এমপি মহিব-এর পক্ষ থেকে শিশুদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ◈ পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেনু সাময়িক বরখাস্ত ◈ মাদক বিক্রিতে অস্বীকার করায় স্ত্রীর চোখে স্বামীর কাঁচির আঘাত ◈ কালিহাতীতে হঠাৎ যমুনায় ভাঙ্গন! ৩০ বাড়ি নদীগর্ভে বিলীন ◈ শ্রীনগরে নৌকা বিকিকিনিতে করোনার প্রভাব ◈ বেনাপোলে ১০৫ দিন পরে রপ্তানি বানিজ্য সচল ◈ আনোয়ারায় টেন্ডারে সুপারিশ না করাই শ্রমিক নেতার উপর যুবদল নেতার সন্ত্রাসী হামলা

বকশীগঞ্জে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের নামে যুবলীগ নেতার চাঁদাবাজী!

প্রকাশিত : ১২:৪৫ AM, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ Monday ১১৯ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জামালপুরে দেওয়ান গঞ্জ সানন্দবাড়ী লম্বাপাড়া গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগের নামে বাণিজ্যে মেতে উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী আমিনুল ইসলাম আকন্দ।এমন অভিযোগ করেছেন স্থানীয় লোকজন। বিদ্যুৎ সংযোগের নাম করে হাতিয়ে নিচ্ছে সাধারন মানুষের লক্ষ টাকা।

প্রভাবশালী এই চক্রের কবলে পড়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়েও সমস্যা সমধান পাচ্ছেনা অভিযোগকারীরা। ডিজিএম আখতারুজ্জামান ও প্রকৌশলী রহস্য জনক কারনে নীরব থাকায় চাঁদাবাজীতে তাদেরো যোগ সুত্র আছে বলে ধারনা করছে এলাকাবাসী।
দেওয়ানগঞ্জ সানন্দবাড়ি ইউনিয়নে শতভাগ বিদ্যুতায়নে ১১ টি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। এর মধ্যে ৮ টি সম্পন্ন হয়েছে। বাকি ৩ টির মধ্যে লম্বাপাড়ার কাজ আগামী সপ্তাহে শেষ হবে বলে সুত্র জানিয়েছে।

লম্বাপাড়ায় ২৫০ টি পরিবার রয়েছে। স্থানীয় ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি দাবীদার আমিনুল ইসলাম আকন্দ জানান, তিনি মিটার ও ওয়ারিং বাবৎ প্রতি গ্রহকের কাছ থেকে ৫ হাজার ও সাড়ে ৫ হাজার টাকা করে নিয়েছেন। আগামী বৃহস্প্রতিবারে ব্যাংকে টাকা জমা দেয়া হবে। তিনি আরো জানান শ’খানেক গ্রাহক হবে। তারা অতিসত্বর সংযোগ পেয়ে যাবে।

অভিযোগে দেখা যায় গ্রাহক সংখা আড়াইশ। গ্রামের চারিপাশে প্রতিটি গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগ পেলেও এখন পর্যন্ত বিদ্যুৎ পায়নি এই গ্রামের আড়াই শতাধিক পরিবার। তাহলে কি বাকি দেড়শত পরিবারের কি হবে? বকশীগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের এতো কর্মচারী থাকার পরও যুবলীগ নেতার টাকা আদায় করার কারন কি?

খোঁজনিয়ে জানা গেছে, লম্বাপাড়ার বিদ্যুতায়নের কাজ করেছেন টাংগাইলের ঠিকাদার খোরশেদ আলম। তিনি যে সকল দালালের মাধ্যমে কাজ করিয়েছেন তারা হলো,মোশাররফ, বাক্কী,জজ মিয়া ও দেলোয়ার। যুবলীগ নেতা আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন এসকল দালালরা এলাকায় বিদ্যুতের কাজ করিয়েছে।এলাকায় গ্রাহকদের কাছে চাঁদাবাজী তারাই করেছে। দালালরা ডিজিএম ও প্রকৌশলীর লোক।

বিনা পয়সায় বিদ্যুৎ সংযোগ এর কথা থাকলেও এ ক্ষেত্রে ৫/৬ হাজার টাকা গ্রাহক পিছু নেয়ার কারন কি? এসব কথা ডিজিএম আখতারুজ্জামানের কাছে জানতে চাইলে তিনি ব্যস্থতা দেখিয়ে মোবাইলের কল কেটে দেন। স্থানীয় যুবলীগের কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানাগেছে আমিনুল ইসলাম যুবলীগ থেকে বহিস্কার করা স্বঘোষিত নেতা।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT