রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

মঙ্গলবার ২৪ মার্চ ২০২০, ১০ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ সিরাজগঞ্জ-চট্টগ্রাম-সিলেট রুটে বাস চলাচল বন্ধ ◈ জনসমাগম ঘটিয়ে মেয়ের বিয়ে দেয়া সেই সিভিল সার্জন ওএসডি ◈ হাত কেটে আর চোখে মরিচের গুঁড়ো ছিটিয়ে ছিনতাইয়ের নাটক ! অতঃপর ◈ করোনা মোকাবিলায় স্টেডিয়ামগুলোকে হাসপাতাল বানাচ্ছে ব্রাজিল ◈ নেপালে দু’জনের শরীরে করোনা পৌঁছাতেই দেশজুড়ে লকডাউন ◈ ইতালির লোম্বার্ডিতেই একদিনে আরও ৩২০ মৃত্যু ◈ বিদেশ থেকে ফিরে অফিসে ব্যাংক কর্মকর্তা, ধরলেন ম্যাজিস্ট্রেট ◈ এসিআইয়ের দুই কোটি টাকার মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য জব্দ, ১০ লাখ জরিমানা ◈ করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে যা করবে সেনাবাহিনী ◈ সলঙ্গায় মহাসড়কে ব্রিজের মুখ বন্ধ,জায়গা দখল করে অবৈধ ভাবে পুকুর খনন

পাকিস্তানে ‘বন্দি’ বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা

প্রকাশিত : ১২:১১ AM, ২৬ জানুয়ারী ২০২০ Sunday ৭৮৩ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

কী বিশ্বাস হচ্ছে না? হবে কিভাবে, সবাই তো জানেন বাংলাদেশ দল তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজ খেলতে গেল। এরিমধ্যে দুটি ম্যাচের ফয়সালাও হয়েছে। এখন হুট করে এমন খবর কেন।

হ্যাঁ, সবই ঠিক আছে। কিন্তু এটা সত্য যে, পাকিস্তানে নিরাপত্তার বেড়াজালে এক প্রকার বন্দি দশার মধ্যে দিয়েই দিন পার করছেন তামিম-সৌম্যরা!

কঠোর নিরাপত্তা, মন চাইলেই ঘুরতে যাওয়ার উপায় নেই। দুদণ্ড বিশ্রামেরও জো নেই। ম্যাচের আগে কিংবা পরে কোনো হোটেলে খেতে বসবেন? চিন্তাও করা যাবে না।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেল, কেবল ক্রিকেটার নয়, বাংলাদেশ দলের সঙ্গে যারা গেছেন পাকিস্তান সফরে, তাদের অবস্থাও এমন।

বাংলাদেশি সাংবাদিক, কোচিং স্টাফ, মিডিয়া ম্যানেজার, বোর্ড কর্তা কিংবা পরিচালক সবাই এখন এ রকম বন্দী সময় পার করছেন। দলের সঙ্গে মাঠে। এরপর মাঠ থেকে টিম হোটেল। এর বাহিরে কোথায়ও যাওয়ার সুযোগ নেই।

অবাক লাগছে তাই না। অথচ অন্য দেশে বাংলাদেশ দল যখন দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে যেত, তখন সময়, সুযোগ পেলেই খেলোয়াড়রা নিজেদের মতো করে শপিং করতেন, কয়েকজন মিলে দর্শনীয় কোনো স্থানে ঘুরতে বের হতেন। আবার কেউ কেউ নামীদামী হোটেলেও যেতেন হরেক রকমের খাবারের স্বাদ নিতে।

আর পাকিস্তান সফরটা তার পুরোই উল্টো। রোববার (২৬ জানুয়ারি) নেই কোনো ম্যাচ। টানা দুই টি২০’র পর কিছুটা বিশ্রাম পেল ক্রিকেটাররা। কিন্তু গোটা একদিন কিভাবে পার করবে তারা। টিম হোটেলে টিভি দেখে, না-কি স্মার্টফোন গেমস খেলে।

পিসিবির আর কী দোষ? এই সিরিজ নিয়ে জল তো কম ঘোলা হয়নি। শুরুতে বাংলাদেশ কিছুতেই রাজি ছিল না। এক পর্যায়ে শুধু টি২০’র জন্য ইয়েস বলে বিসিবি। কিন্তু পাকিস্তান নাছোড়বান্দা। তারা কোনো কিছু না বলে সোজা আইসিসির কাছে নালিশ করল।

শেষমেশ বিসিবি’রই বা কী করার থাকে। হেডস্যার-আইসিসি যখন বললেন যেতে হবে পাকিস্তানে। তখন তো ‘না’ বলার আর অপশন নেই।

পাকিস্তান আগে থেকেই বলে রেখেছিল তারা কঠোর নিরাপত্তা দেবে। এখন তো সেটাই হচ্ছে। এ জায়গায় কিন্তু তারা ‘বেদের মেয়ে’ জোসনার মতো ফাঁকি দেয়নি। কথা দিয়ে ঠিকই কথা রেখেছে।

নিজেদের সর্বশক্তি দিয়ে বাংলাদেশ দলকে নিরাপত্তা দিচ্ছে। তবে কোনো কিছু যে অতিরিক্ত হলে তোতো লাগে। এটা বোধ হয় তারা ভাবেনও না।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT