রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১, ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০১:১৮ অপরাহ্ণ

নিভে গেল এক জ্ঞান প্রদীপ

প্রকাশিত : ০৯:৫৯ AM, ২২ জানুয়ারী ২০২১ শুক্রবার ৬৫ বার পঠিত

মাসুদ রানা, পত্নীতলা প্রতিনিধি:
alokitosakal

মাসুদ রানা,পত্নীতলাঃ

নিভে গেল এক জ্ঞান প্রদীপ। চলে গেলেন আলোকিত মানুষ শিক্ষাবিদ প্রফেসর এস এম হাতেম আলী। হাজারো মানুষের শোক ভালবাসায় চির বিদায় নিলেন সেই আলোর বাতিঘর। তিনি নওগাঁ চেম্বার অফ কমার্স এ্যন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর সভাপতি ইকবাল শাহরিয়ার রাসেলের পিতা।
গত মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারী) ভোরে তিনি নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রয়াত হন। আজ শুক্রবার বাদ যোহর নওগাঁ মাস্টার পাড়া জামে  মাসজিদে  মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনায়  মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি ১৯৪৫ সালে নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার কোলার পালশা গ্রামে মফিজ উদ্দীন সরদারের ঘর আলোকিত করে জন্ম নিয়েছিলেন তিনি। মৃত্যুকালে এ প্রথিতযশা শিক্ষানুরাগীর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ, ডায়াবেটিস রোগে ভুগছিলেন। তাঁর মরদেহ প্রথমে গ্রামের বাড়ীতে এবং পরে নওগাঁ নওজোয়ান মাঠে বাদ মাগরিব  জানাজার পর নওগাঁয় সমাহিত করা হয়।

তাঁর মৃত্যুতে সহকর্মী, ছাত্র শিক্ষক , রাজনৈতিক ব্যক্তি সহ সর্বস্তরের মানুষরা তাঁকে শেষ বারের মত দেখার জন্য ভীঁড় করে নওজোয়ান মাঠে। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে, নাতি নাতনী সহ অসংখ্য ছাত্র ছাত্রী গুনগ্রাহী রেখে যান। তিনি ১৯৬২ সালে নওগাঁ কেডি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে র্ফাস্ট ডিভিশনে মেট্রিকুলেশন পাশ করে কেডিয়ানদের মুখ উজ্ঝল করেছিল পরে নওগাঁ বিএমসি কলেজ থেকে আইএসসি এবং এরপরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগ থেকে স্নাতক ও মার্স্টাস পাশ করেন, শিক্ষা জীবন শেষে প্রথমে নিজ উপজেলার কোলা উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক এরপর বরসাইল উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক, যশোরের একটি কলেজে, জয়পুরহাট সরকারী কলেজ, নাটোর কলেজ, বগুড়া আজিজুল হক কলেজ, শাহ সুলতান কলেজ এবং সবশেষে ঢাকা শহীদ সোহারাওয়ার্দী কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যাপনা করেছেন তিনি। প্রশাসনের সেক্টরে সুযোগ হলেও তা না করে   শিক্ষকতা মহান পেশায় নিয়োজিত থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে জ্ঞান বিতরণ করেছেন।
২০০৫ সালে কর্ম জীবন থেকে অবসর গ্রহণ করেন এবং ২০০৭ সালে হজ্জ পালন করেন। জীবদ্দশায় তিনি গরীব ও মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের পড়াশুনায় সহায়তা এবং সবসময় উৎসাহ দিতেন তিনি সবাইকে শিক্ষিত হওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করতেন। শিক্ষানুরাগী এই মানুষটি এলাকার মসজিদ, মাদ্রাসা, এতিমখানা, গরীব অসহায় মানুষদের পাশে ছিলেন এছাড়া বিভিন্ন দাতব্য প্রতিষ্ঠানে সহায়তা করেছেন। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তি যুদ্ধেও রেখেছেন অবদান সরাসরি যুদ্ধ না করলেও মুক্তি যোদ্ধাদের সাহায্য করেছেন বীর মুক্তি যোদ্ধা কমান্ডার এসপি আবু বক্কর সিদ্দিক তাঁর অত্যান্ত ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ সরকারী কলেজ শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক, সহসভাপতি ও পরে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত নওগাঁ ইমাম মোয়াজ্জেম সমিতির উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেন। তিনি তাঁর র্কমের জন্য মানুষের অন্তরে বেঁচে থাকবেন অনন্তকাল।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT