রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
◈ জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের আজ অস্তিত্ব সংকটের মুখে ◈ ময়মনসিংহে রেলওয়ের অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ অভিযান শুরু ◈ লালমনিরহাটে বিএনপির মিছিলে পুলিশি বাঁধা ক্ষিপ্ত নেতারা ◈ শেরপুর ফাঁড়ি পুলিশের লবণ নিয়ে সতর্কবার্তা ◈ এমপি মানিকের বিরুদ্ধে কটুক্তির প্রতিবাদে ছাতকে আ’লীগের বিক্ষোভ ◈ নবীগঞ্জে ৬০ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি ◈ বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন ফেনী জেলা শাখা মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ◈ গংগাচড়ায় দুইদিন ব্যাপি মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত ◈ গাজীপুর মহানগর ধীরাশ্রম এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ চোরাই সেগুন কাঠ টাক আটক করেন ◈ সাপাহারে তিলনা ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে সাংবাদিক হাফিজুলকে চায় এলাকাবাসী

নতুন এমপিও নিয়ে অভিযোগের পাহাড়

প্রকাশিত : ০৭:৩১ পূর্বাহ্ণ, ৬ নভেম্বর ২০১৯ বুধবার ৩১ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :
alokitosakal

নতুন এমপিওভুক্তি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে অভিযোগের পাহাড় জমা পড়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে। এ নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকারের এমপি, মন্ত্রী ও সিনিয়র নেতাদের অসন্তোষ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। দীর্ঘ ৯ বছর পর ২ হাজার ৭৩০টি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তি করে সরকার। এমপিও পাওয়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিএনপি, জামাত, রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধীদের নামের প্রতিষ্ঠান ছাড়াও অস্তিত্বহীন, সরকারি এবং এমপিও পাওয়া প্রতিষ্ঠান রয়েছে। অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন গ্রহণ শেষে প্রায় এক বছর ধরে যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়ার পরে এ ধরনের অসঙ্গতি ও ভুলের দায়ে যাচাই-বাছাই কমিটির প্রধান ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদকে বদলি করা হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ভূমি মন্ত্রণালয়ে তাকে বদলি করা হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে বদলির আদেশ জারি করা হবে।

বর্তমান এমপি ও মন্ত্রীদের নিজের প্রতিষ্ঠিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাদ পড়েছে। বিএনপি, জামাত, রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধীদের নামের প্রতিষ্ঠান ছাড়াও অস্তিত্বহীন, সরকারি, এবং এমপিও পাওয়া প্রতিষ্ঠান রয়েছে। নোয়াখালীর কবিরহাটে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের বাবার নামে ১৯৯৬ সালে প্রতিষ্ঠিত মোশাররফ হোসেন মাধ্যমিক হাই স্কুল ও টাঙ্গাইলের ধনবাড়িতে কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাকের মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত রেজিয়া কলেজ, সাবেক সমাজকল্যাণ মন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ প্রতিষ্ঠিত এবং সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া যে কলেজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন ও বর্তমান বেসমারিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো. মাহবুব আলী এমপির প্রতিশ্রুতি দেওয়া হবিগঞ্জের মাধবপুরের চৌমুহনী খুর্শিদ হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজটিও এমপিওভুক্ত হয়নি। নীতিমালার সব শর্ত পূরণ করা সত্তে¡ও ২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠিত এই কলেজটি বাদ পড়েছে। এমনকি এমপিওভুক্তির দাবিতে যেসব শিক্ষক আন্দোলন করেছিলেন তাদের সংগঠন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি ও সম্পাদকের প্রতিষ্ঠানও এমপিওভুক্ত হয়নি।

তবে ভোলার সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের মা, বাবা, স্ত্রী ও নিজের নামে প্রতিষ্ঠিত চারটি প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হয়েছে। জামালপুর সদর উপজেলায় ১৮টি প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হয়েছে। জামালপুর সদরের দিপাইত শামছুল হক ডিগ্রি কলেজে কৃষি ডিপ্লোমা কোর্সের পাঠদানের অনুমোদন নেই। শাখাটিতে নেই কোনো শিক্ষক-কর্মচারীও। শিক্ষার্থী রয়েছেন মাত্র চারজন। তবু এমপিওভুক্তির তালিকায় উঠে এসেছে এ শাখার নাম। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নামে একাধিক প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়েছে। এর বাইরে বিএনপি নেতাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মধ্যে আছে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার সোনাকান্দা ড. মোশাররফ হোসেন ইসলামিয়া রহমানিয়া দাখিল মাদ্রাসা, দাউদকান্দি উপজেলার ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন হাই স্কুল, ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার শহীদ জিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা, বগুড়া গাবতলীর শহীদ জিয়াউর রহমান গার্লস হাই স্কুল, সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার এম সাইফুর রহমান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজ, সাতক্ষীরার তালার শহীদ জিয়াউর রহমান মহাবিদ্যালয়, ঝালকাঠির নলছিটির প্যালেস্টাইন টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ ও বগুড়ার গাবতলীর শহীদ জিয়াউর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

কুড়িগ্রামের ভ‚রুঙ্গামারী উপজেলায় সদর ইউনিয়নে এক কিলোমিটারের মধ্যেই চারটি কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে একই মালিকের দুটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যার একটির পরিত্যক্ত ভবন থাকলেও নেই কোনো শিক্ষার্থী। অন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী দেখিয়ে এমপিওভুক্তির অভিযোগ উঠেছে। সোনাহাট ইউনিয়নের ঘুন্টির মোড়ের উপমা মহিলা টেকনিক্যাল অ্যান্ড আইটি ইনস্টিটিউটের নাম পরিবর্তন করে ‘এফএ মহিলা টেকনিক্যাল অ্যান্ড আইটি ইনস্টিটিউট’ ব্যানার লাগানো হয়েছে। অথচ টিনশেড এই প্রতিষ্ঠানে নেই কোনো শিক্ষার্থী।

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় যুদ্ধাপরাধ মামলার আসামি আলহাজ ঝুনু মিয়ার নামে নামকরণ করা আলহাজ ঝুনু মিয়া হাই স্কুলের নিম্ন মাধ্যমিক স্তর এমপিওভুক্ত হয়েছে। ২০১৭ সালের ১২ সেপ্টেম্বর ঝুনু মিয়ার নামে জামালগঞ্জ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সদরকান্দি গ্রামের আবদুল জলিল একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছিলেন। এলাকাবাসী এখন স্কুলটির নাম পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছেন। পঞ্চগড়ের সদর উপজেলার চাকলাহাট ইউনিয়নের বাসিন্দা ৭১-এর শান্তি কমিটির সদস্য খামির উদ্দিন প্রধানের নামে প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসাটির আলিম স্তর এবার এমপিওভুক্ত হয়েছে। পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার সন্দেশ দীঘি নিম্ন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে বসার স্থানও নেই। প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষার্থী, পরীক্ষার ফল কোনোটাই ভালো নয়। তবুও এমপিওভুক্ত হয়েছে এই প্রতিষ্ঠান।

এ ছাড়া হিলফুল ফুজুল জামায়াতে ইসলামীর এনজিও নামে পরিচিত। তাদের পরিচালিত ঢাকার কামরাঙ্গীরচরের হিলফুল ফুজুল টেকনিক্যাল ও বিএম কলেজ, নেত্রকোনার কমলাকান্দায় হিলফুল ফুজুল দাখিল মাদ্রাসাও এমপিওভুক্ত হয়েছে। পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ঝলইশালশিরি ইউনিয়নের নতুন হাট টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট এমপিওভুক্তির পরই গত বুধবার রাত থেকে নতুন হাট বাজারের পাশে একটি জমিতে ওই কলেজের সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। একই সঙ্গে জোরেশোরে শুরু হয়েছে কলেজটির নির্মাণকাজ। রাজধানীর বাড্ডায় অবস্থিত ন্যাশনাল কলেজ। এই প্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং বডি ও অধ্যক্ষ নিয়ে দীর্ঘদিন ঝামেলা চলছে। ভাড়া বাড়িতে চলছে পুরোদস্তুর বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানটি। তাদের স্বীকৃতিও যথাযথভাবে নবায়ন হয়নি। অথচ এবারের এমপিওভুক্তির তালিকায় আছে এই প্রতিষ্ঠানটিও।

একইভাবে নরসিংদী আইডিয়াল কলেজ ও নরসিংদী বিজ্ঞান কলেজও চলছে ভাড়া বাড়িতে। তারাও এমপিও পেয়েছে। যশোরের অভয়নগর উপজেলায় আগে থেকেই এমপিওভুক্ত রাজ টেক্সটাইল নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি এবারও নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসেবে এমপিওভুক্তিতে স্থান পেয়েছে। অথচ প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমিক শাখা এমপিওভুক্তির জন্য আবেদন করেছিল। যশোরের অভয়নগর উপজেলার ২০০৪ সালে এমপিওভুক্ত রাজ টেক্সটাইল নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি নতুন তালিকায় যুক্ত হয়েছে। মাধ্যমিক স্তরে এমপিওভুক্তির আবেদন করে প্রতিষ্ঠানটি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসেবে পুনরায় এমপিওভুক্ত হয়। এর ফলে বিদ্যালয়টির মাধ্যমিক স্তরে চাকরিরত শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে আনন্দের পরিবর্তে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহজালাল কলেজটি জাতীয়করণ হয়ে গেলেও তাদের রাখা হয়েছে এমপিওভুক্তির তালিকায়।

এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সাংবাদিকদের বলেছিলেন, নীতিমালা অনুযায়ী সফটওয়্যারের মাধ্যমে অনলাইনে যাচাই-বাছাই করে যোগ্য প্রতিষ্ঠানকে এমপিও দেওয়া হয়েছে। শর্ত অনুযায়ী যেসব তথ্য চাওয়া হয়েছে, তা পূরণ করা সাপেক্ষে এমপিও তালিকা করা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানকে গত জুলাই থেকেই বেতন-ভাতা দেওয়া হবে। তবে সরেজমিন যাচাই-বাছাই করে দেখা হবে, যেসব শর্ত আবেদনের উল্লেখ করা হয়েছে, তা ঠিক আছে কি না। সরেজমিন যাচাই-বাছাই করে যদি মিথ্য বা ভুল তথ্য পাওয়া যায় তাহলে এমপিও ছাড় হবে না। এমপিও ছাড় পেতে শর্ত পূরণ করতে হবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT