রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শুক্রবার ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

০৪:৩২ পূর্বাহ্ণ

দর্শক যখন হাততালি দিবে, প্রাপ্তিটা হবে সেখানেই: সিয়াম

প্রকাশিত : 05:50 AM, 21 November 2019 Thursday ৪১ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :
alokitosakal

ঢাকাই সিনেমায় যে ক’জন অভিনেতা প্রথম সিনেমাতেই অভিনয় স্বকীয়তায় প্রশংসা কুড়িয়ে নায়ক তকমা পেয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম সিয়াম। রূপালি পর্দায় নাম লিখিয়েই কুড়িয়েছেন অসংখ্য সুনাম, পেয়েছেন জনপ্রিয়তা। চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারের অল্প সময়েই মুক্তি পাওয়া তিনটি ছবি থেকেই ব্যাপক সাড়া পেয়ে এখন থীতু হয়ে আছেন চিত্রপাড়ায়। সম্প্রতি এক আলাপচারিতায় কথা হয় তার কাজ, ব্যস্ততা ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে।

মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে আপনার অভিনীত ‘বিশ্ব সুন্দরী’ ছবিটি। ছবিটা নিয়ে আপনি কতটা আশাবাদী?

সিয়াম: বিশ্ব সুন্দরী একটা প্রেমের গল্প, একটা সামাজিক গল্প। আসছে ডিসেম্বরেই ছবিটি মুক্তি পাবে। আমার ডাবিং শেষ হয়েছে এবং ছবির সব কাজই সম্পূর্ণ শেষ বলা যায়। ছবিটার মধ্যে অনেকগুলো গল্প আছে, অনেক কিছু জানার আছে। পরিবারের সবাইকে নিয়ে দেখার মত একটা ছবি। এই ছবিতে এমন কোন দৃশ্য নেই যেটা পরিবার নিয়ে দেখা যাবে না। খুব ক্লিন ইমেজ নিয়ে এই ছবিটা করেছি। পরিচালক সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়েছেন কাজ করার। ছবিটি নির্মাণ করেছেন একজন নারী নির্মাতা, চয়নিকা চৌধুরী। তিনি নারী চরিত্র এবং নারী ক্ষমতায়ন খুব সুন্দর বুঝেন এবং সেটা ফুটিয়ে তুলতে পারেন। এখনকার সিনেমায় তো এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ যে নারীরা আসলে কি বলতে চায়! এই দিক থেকে বলবো ছবিটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। উনার কাজ অনেক সিনিয়র শিল্পী থেকে শুরু করে অনেকেই দেখেছেন, তার কাজ পছন্দও করেন। সেদিক থেকে তার প্রথম সিনেমাটা কেমন হয়েছে সেটা দেখার জন্য যখন সবাই আসবে এবং অন্যদেরকে দেখার জন্য আহবান করবে তখন তো দর্শকরা আসতে বাধ্য ছবি দেখতে। আমাদের সবার উচিত সবার পাশে দাঁড়ানো, ভালো কাজে সাপোর্ট করা। মন্দ হলে সেটা নিয়ে গঠনমূলক সমালোচনা করা, পথ বলে দেওয়া।

‘বিশ্ব সুন্দরী’ ছবিটির পোস্টার ও একটি গান প্রকাশ পেয়েছে এরমধ্যে। গান এবং পোস্টার দুটো জিনিস নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। অনেকেই বলছেন পোস্টারটি আরও ভালো হতে পারতো এবং গান যেটা প্রকাশ পেয়েছে সেটাতে ফিল্মি ব্যাপারটা ছিলনা। এই বিষয়ে আপনার মতামত কি?

সিয়াম: আমি কিছু রিভিউ দেখেছি। আমি যদি আমার চলচিচত্রের সাথে এটাকে মিল খুঁজতে যাই তাহলে বলবো, আমার ছবিতে যেরকম গল্প দেখাতে চেয়েছেন পরিচালক সেটার সাথে মিল রেখেই কিন্তু করা হয়েছে। হ্যাঁ, এটা ঠিক ভালোর তো কোন শেষ নেই। সবগুলো কাজই যে টপমোস্ট ভালো হবে সেটা কিন্তু না। তারপরও পরিচালক চেষ্টা করেছেন ভালো কিছু করতে। আমাদেরও অনেক সীমাবদ্ধতা আছে, সেগুলো মেনেই কাজ করতে হয়। তবে সামনে যেগুলো আসবে ইনশাহআল্লাহ আরও ভালো কিছু হবে। তবে একটা ভালো কাজের জন্য সবার সাপোর্টটা খুব জরুরী।

এরইমধ্যে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন রায়হান রাফি পরিচালিত ‘ইত্তেফাক’ ছবিতে। ছবির শুটিং কবে থেকে শুরু হচ্ছে?

সিয়াম: রাফির সঙ্গে আমার বন্ডিংটা খুব ভালো। দুজনের মধ্যে একটা বেশ ভালো আন্ডারস্ট্যান্ডিং রয়েছে। ছবিটিতে কাজের জন্য আগেই কথাবার্তা চূড়ান্ত হওয়া ছিল। আগামী সপ্তাহেই শুটিংয়ে যোগ দেবো। নভেম্বর ২০ অথবা ২১ এই দুইদিনের যেকোন একদিন থেকেই শুটিং শুরু হবে। ঢাকা এবং সিলেট দুই জায়গাতেই শুটিং হবে। সবকিছুই ঠিকঠাক, এখন আমরা কোন জোন ধরে শুটিং শুরু করবো সেটা নিয়ে এখন আলোচনা চলছে। এটা চূড়ান্ত হলেই আমরা বলতে পারব নির্দিষ্ট করে যে কবে কোথায় শুরু করছি। এই লটে টানা শুটিং চলবে ডিসেম্বরের ১০ কিংবা ১২ তারিখ পর্যন্ত।

ছবিটির গল্পটা কেমন? আপনার প্রতিটা ছবিতে গল্পে এবং আপনার চরিত্রে ভিন্নতা দেখা গিয়েছে। এই ছবির ক্ষেত্রে দর্শক নতুন কি পাচ্ছে?

সিয়াম: আমি কখনওই নিজেকে একটা ধারায় বন্দী করে রখতে চাই না। নিজেকে যতটা পেরেছি ভাঙার চেষ্টা করেছি এবং এখনও করে যাচ্ছি। একই চরিত্রে বারবার হাজির হয়ে দর্শকদের ধোঁকা দিতে চাই না। অল্প সময়ের চলচ্চিত্রের ক্যারিয়ারে যতটুকু ভালোবাসা পেয়েছি সেটাকে হারাতে চাই না। আমার প্রতি দর্শকদের যে প্রত্যাশা চেষ্টা করছি সেটা মাথায় রেখে কাজ করতে। নতুন এই ছবির গল্পটাও আগের গল্পগুলোর চেয়ে আলাদা। আমার চরিত্রটাও ঠিক তেমনি। ভিন্নতা তো থাকছেই, সাথে থাকছে চমক। এখনই এটা নিয়ে কিছু বলতে চাচ্ছি না। দর্শকরা অনুমান করতে থাকুক। শিগগিরই হয়তো নতুনত্ব দেখতে পাবেন তারা। আমরা দর্শকদের জন্যই কাজ করি, এতটা পরিশ্রম করি। তাই দর্শকরাই আমাদের অনুপ্রেরণা। আমার প্রতিটা কাজ করার ক্ষেত্রে দর্শকদের কথা মাথায় রেখেই কাজ করতে চাই।

অন্যান্য অনেক নায়কের চেয়ে এই সময়টাতে আপনি খুব ব্যস্ততা পার করছেন। পরপর হাতে ছবি আসছে, বিরতি না দিয়ে টানা শুটিং করে যাচ্ছেন। নিজেকে কতটা সময় দিতে পারছেন বা সবকিছু একসাথে কিভাবে সামলাচ্ছেন?

সিয়াম: আলহামদুলিল্লাহ। অন্যান্য অনেকের চেয়ে বেশি ব্যস্ত কিনা ঠিক জানিনা, তবে আমি আমার কাজটা ঠিকমত করে যাওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমি কমিটমেন্টে বিশ্বাসী, তাই কাউকে কমিটমেন্ট দিলে সেটা নড়চড় হতে দেই না। হাতে বেশকিছু কাজ থাকায় হয়তো নিজেকে ঠিক ওইভাবে সময় দিতে পারছিনা। দেখা গেছে একটা ছবির কাজ টানা শেষ করে অন্য কাজে যেতে হচ্ছে কারণ আগে থেকেই সময় দেওয়া। তাই এই সময়টাতে নিজেকেই সময় দিতে পারছিনা। সেটা করতে গেলে দেখা যাবে কোন পরিচালক ফেঁসে যাচ্ছেন। আর আমি সেটা করতে পারি না।

প্রতিটা কাজেই যেহেতু নিজেকে নতুন করে উপস্থাপন করতে চেষ্টা করছি, সেজন্য আমার কিছুটা সময় দরকার। একটা চরিত্র থেকে বের হয়ে অন্য একটা চরিত্রে নিজেকে ধারণ করতে কিছুটা সময় দেওয়া উচিত। কিন্তু সবাইকে আগে থেকেই কমিটমেন্ট দেওয়ার কারণে এরমধ্যেই যতটা সম্ভব সেই চরিত্রের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করেই কাজটা শুরু করছি, প্রতিটা কাজের ক্ষেত্রেই। অপারেশন সুন্দর ছবিতে একজন র‍্যাবের কর্মকর্তা হিসেবে দেখা যাবে আমাকে। সেটার জন্য র‍্যাবের ক্যাম্পে গিয়ে ট্রেনিং নিচ্ছি। তাদের কৌশল আয়ত্ত করছি। আমার কষ্ট হলেও কাজের ক্ষেত্রে ভ্যারিয়েশনটা আনতে চাই।

বিয়ে করেছেন মাস কয়েক হলো। পরিবারকে ঠিকমত সময় দেওয়া হয় কি?

সিয়াম: সত্যি বলতে যতটা সময় দেওয়া দরকার ঠিক ততটা দিতে পারছি না। তবে মাঝখানে কিছুদিন ছুটি নিয়ে স্ত্রীকে সঙ্গে করে দেশের বাইরে থেকে ঘুরে এসেছি। স্ত্রীকে কিছুটা সময় দেওয়ার চেষ্টা করেছি। স্ত্রীর বাইরে অবন্তী আমার খুব ভালো একজন বন্ধু। সে আমাকে বুঝে, আমাকে দেখে অনেক কিছুই মুখ বুঝে সহ্য করে নেয়। আর আমাকে প্রচন্ড পরিমাণে সাহস আর উৎসাহ দেয়। দিনশেষে বাসায় ফিরে যখন স্ত্রীর হাসিমাখা মুখটা দেখি তখন যেন মনের সব ক্লান্তি দূর হয়ে যায়।

পরিবারের মধ্যে বাবা-মা এবং আরও যারা আত্মীয়-স্বজন আছেন সবাইকে আমাকে বলেন নিজেকে কেন সময় দিচ্ছিনা। এমনও সময় গিয়েছে যে আমার ফুফু-খালারা আমাকে বকাবকিও করেছেন আমি কেন আমার চেম্বারের বসছি না। মাঝখানে কিছুদিন চেম্বারে বসেছিলাম, এখন আর বসতে পারছি না। ব্যারিস্টারি শেষ করে চেম্বারে না বসে চলচ্চিত্রে সময় দিচ্ছি অনেক কষ্ট করে। হয়তো অনেক কিছু ত্যাগ করেছি,তবে দর্শকদের ভালোবাসার কাছে সেটাকে তুচ্ছ করেই নিলাম। যতটা পরিশ্রম করে একটা কাজ করে যাচ্ছি, সেই কাজটা দেখে দর্শক যখন একটা সিটি কিংবা হাততালি দিবে, আমার প্রাপ্তিটা হবে সেখানেই।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT