রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

মঙ্গলবার ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

তুলা চাষে নেই গতি

প্রকাশিত : ০৫:৩৩ পূর্বাহ্ণ, ৯ অক্টোবর ২০১৯ বুধবার ৩৪ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :
alokitosakal

নতুন করে লোকবল নিয়োগ না হওয়ায় অর্ধেকেরও কম লোকবল দিয়ে চলছে তুলা উন্নয়ন বোর্ডের রংপুর উপ-পরিচালকের কার্যালয়। বিশেষজ্ঞ তিনটি পদের মধ্যে মাত্র একজন কর্মরত থাকলেও গত দেড় বছর ধরে অন্যত্র প্রেষণে থাকায় কার্যত বিশেষজ্ঞ শুন্য হয়ে পড়েছে কার্যালয়টি।

ফলে চারটি জোনের প্রশাসনিক ও কারিগরি কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে সম্পাদনে ভোগান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। পাশাপাশি স্বল্প লোকবল দিয়ে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত ৬১টি তুলা ইউনিট অফিসের কার্যক্রম মনিটরিং কাজেও স্থবিরতা দেখা দিয়েছে।

জনবল কাঠামো অনুযায়ী রংপুর আঞ্চলিক তুলা উন্নয়ন বোর্ডের উপ-পরিচালক কার্যালয়ের কর্মকর্তা থেকে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী পর্যন্ত ১৪টি পদ।

পদগুলো হচ্ছে, উপ-পরিচালক একজন, বীজ উৎপাদন বিশেষজ্ঞ একজন, কীটপতঙ্গ বিশেষজ্ঞ একজন, মৃত্তিকা উর্বরতা ও পানি ব্যবস্থাপনা বিশেষজ্ঞ একজন, বীজতলা সংগ্রহ ও জিনিং কর্মকর্তা একজন, উচ্চমান সহকারী একজন, অফিস সহকারী/ কম্পিউটার অপারেটর একজন, স্টোর কাম ফিডম্যান একজন, গাড়িচালক একজন, অফিস সহায়ক তিনজন এবং নিরাপত্তা প্রহরী দুইজন।

শুন্য পদগুলো হচ্ছে, বীজ উৎপাদন বিশেষজ্ঞ, কীটপতঙ্গ বিশেষজ্ঞ, বীজতলা সংগ্রহ ও জিনিং কর্মকর্তা , উচ্চমান সহকারী, স্টোর কাম ফিডম্যান, গাড়িচালক এবং একটি অফিস সহায়ক পদ শুন্য রয়েছে। এছাড়াও মৃত্তিকা উর্বরতা ও পানি ব্যবস্থাপনা বিশেষজ্ঞ পদটিও শুন্য রয়েছে।

উল্লেখিত পদে কর্মরত ব্যক্তি এই অফিস থেকে বেতন-ভাতা তুললেও প্রায় দেড় বছর ধরে প্রেষণে শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি করছেন। তাই বর্তমানে ছয়জন কর্মকর্তা এবং কর্মচারী দিয়ে চলছে উপ-পরিচালকের কার্যালয়। এছাড়াও প্রায় দুই বছর আগে গাড়িচালক সুলতান অবসর গ্রহণ করায় ফিল্ড মনিটরিংয়ের কাজ মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে বলে জানা গেছে।

কর্মচারীরা বলেন, প্রতিনিয়ত বিভিন্ন শস্যের আবাদ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই তুলা চাষে জমি বৃদ্ধি করা কঠিন হয়ে পড়েছে। ফলে কৃষকদের তুলা চাষে আগ্রহী করার জন্য কম জমিতে অধিক ফলন হয় এমন উচ্চ ফলনশীল জাতের নতুন নতুন তুলা বীজের উদ্ভাবন প্রয়োজন। এছাড়াও জমি তৈরি এবং রোগ-বালাই দমনে চাই কার্যকর পদক্ষেপ। কিন্তু বিশেষজ্ঞ পদগুলো শুন্য থাকায় ব্যাহত হচ্ছে রংপুর অঞ্চলের তুলা চাষ।

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ
লোকবলের অভাবে বিভাগীয় কাজে গতি আসছে না স্বীকার করে তুলা উন্নয়ন বোর্ড রংপুর আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আবু ইলিয়াস মিঞা বলেন, শূন্যপদ দ্রুত পদায়নের জন্য আমরা ঢাকা অফিসকে লিখিতভাবে অবগত করেছি।

তিনি আরো বলেন, ৬১টি তুলা ইউনিট অফিসগুলোর মধ্যে রংপুর বিভাগে ৩১ এবং রাজশাহী বিভাগে ৩০টি অবস্থিত। তাই লোকবল কম থাকায় দাফতরিক এবং মনিটরিং কাজ মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। তাই অবিলম্বে শূন্য পদগুলোতে জনবল নিয়োগ জরুরি বলে জানান এই আঞ্চলিক কর্মকর্তা।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT