রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৪:৩৬ অপরাহ্ণ

ডুমুরিয়ায় পদ্মাসেতুর আদলে গড়ে তোলা প্রতিমা মঞ্চ: শতাধিক প্রতিমায় পুরাণিক কাহিনী

প্রকাশিত : ১২:৫২ AM, ২ অক্টোবর ২০১৯ Wednesday ৯০ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

মো: আসাদুল ইসলাম রিপন, ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি: একটা সময় ছিল যখন দুর্গা পূজা মানেই দুর্গা, অসূর, কার্তিক গনেশ, লক্ষী, সরস্বতির প্রতিমা স্থাপন। এখন আর গুটিকয়েক প্রতিমার ধ্যান ধারনা থেকে সনাতন ধর্মালম্বিরা প্রতিমা তৈরির ও স্থাপনের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলছে ধর্মীয় বিভিন্ন পূরাণিক কাহিনী।’ এমন উদ্যোগ নিয়েছে এবার দুর্গা পূজা উৎসবে ডুমুরিয়া কেন্দ্রীয় কালিবাড়ি ও মঠ কর্তৃপক্ষ। তারা মন্দিরে স্থাপন করেছে ১২৫টির মত প্রতিমা। আর সেগুলো স্থাপন করেছে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতুর আদলে তৈরি মঞ্চের উপর। প্রায় দুই মাস ধরে প্রতিমা তৈরির কাজ চলছে। এখনই প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষেরা সেগুলো দেখতে আসছে।

ডুমুরিয়া সদরের প্রাচীন হাটের দক্ষিণ পাশে ভদ্রা নদীর পাড়ে প্রতিষ্ঠিত ডুমুরিয়া কেন্দ্রীয় কালিবাড়ি ও মঠ। বৃহস্পতিবার সকালে সেখানকার পাচির ঘেরা মন্দিরে প্রবেশ করতেই চোখে পড়বে পদ্মা সেতুর আদলে তৈরি করা অর্ধডিম্বাকৃতির মঞ্চ। সেই মঞ্চের পূর্ব – দক্ষিণ প্রান্ত থেকে উত্তর দিকে প্রতিমা স্থাপন করা হয়েছে। একটি একটি প্রতিমা একটি পূরাণিক ইতিহাস। প্রতিমাগুলোতে এখনও পরিপূর্নভাবে রংতুলির কাজ শেষ হয়নি। পদ্মাসেতুর আদলে তৈরি করা মঞ্চটিতেও রং করা হয়নি। দুই / একদিনের মধ্যেই সকর কাজ শেষ হবে বলে মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। এছাড়া মন্দিরের দুর্গা পূজার প্রধান আকর্ষন দুর্গাদেবীর প্রতিমা তৈরি করা হযেছে। সেখানে দুর্গা, অসুর, কার্তিক গনেশ, লক্ষী, সরস্বতির প্রতিমার পাশাপাশি তাদের বাহন সিংহ, মহিষ, মহিষ, ময়ূর, ইদুঁর, পেচাঁ, রাজহাঁস স্থাপন করা হয়েছে। সেগুলোর রংয়ের মাধ্যমে জীবন্দ রুপ ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। মূল মন্দিরে এসব পাশিাপাশি আরও কমপক্ষে ২৫টি প্রতিমা স্থাপন করা হয়েছে যা পুরাণিক কাহিনীকে কেন্দ্র করে তৈরি করা।

এ সকল প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার ভাস্কর অনীল কুমার ভাস্কর। তিনি ৫জন সহকারী নিয়ে দিনরাত কাজ করে চলেছেন। তিনি বলেন একটা সময়ে শুধুমাত্র দুর্গাদেবী ও তার সন্তানদের প্রতিমা স্থাপন করা হত। দুর্গা দেবীর ভাগ্নে অসুরকে বধকেই বোঝানো হত। কিন্তু বেশ কয়েক বছর যাবত সনাতন ধর্মালম্বিদের পুরাণিক কাহিনী সম্বলিত প্রতিমা স্থাপন করা হচ্ছে। তিনি বলেন পুরাণিক কাহিনী পড়ে সেসব দেব – দেবীর চেহারা কল্পনা করে এসব প্রতিমা তৈরি করা হয়।

ডুমুরিয়া কেন্দ্রীয় কালিবাড়ি মঠ ও মন্দির কমিটির যুগ্ম আহবায়ক তুষার কান্তি দত্ত জানান, কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ি এবার পদ্মাসেতুর উপর মঞ্চ তৈরি করে তার উপর প্রতিমা স্থাপন করতে হবে। আযোজক কমিটির অন্যতম সদস্য পরিতোষ কুমার বৈরাগী জানান, আমাদের সন্তানেরা ধর্মীয় কাহিনী এখন শুনতে চায় না পড়তেও চায় না। তাই পুরাণিক সেসব দেব – দেবীকে তাদের সামনে পরিচিত করতেই এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তাপস কুমার রাহা বলেন, দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের স্বপ্নের সেতু পদ্মা সেতু। সেই সেতুর কাজ এগিয়ে দ্রæত গতিতে। আমরা পরিচিত করতে পদ্মা সেতুর আদলে মঞ্চ তৈরি করেছি।

ডুমুরিয়া উপজেলায় এবার ১৯৮টি মন্দিরে দুর্গাপূজা উদযাপিত হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি গোবিন্দ ঘোষ। এরমধ্যে ধামালিয়া ইউনিয়নে ৮টি মন্দিরে, রঘুনাথপুর ইউনিয়নে ২১টি মন্দিরে, রুদাঘরা ইউনিয়নে ১২ টি মন্দিরে, খর্ণিয়া ইউনিয়নে ১৩ টি মন্দিরে, আটলিয়া ইউনিয়নে ১৯টি মন্দিরে , মাগুরাঘোনা ইউনিয়নে ৭টি মন্দিরে, শোভনা ইউনিয়নে ১৮টি মন্দিরে, শরাফপুর ইউনিয়নে ১২টি মন্দিরে, সাহস ইউনিয়নে ৭টি মন্দিরে, ভান্ডারপাড়া ইউনিয়নে ১২টি মন্দিরে, ডুমুরিয়া ইউনিয়নে ১১টি মন্দিরে, রংপুর ইউনিয়নে ২৬টি মন্দিরে , গুটুদিয়া ইউনিয়নে ১৮টি মন্দিরে ও মাগুরখালি ইউনিয়নে ১৪টি মন্দিরে পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

দুর্গাপূজার সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়ে ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আমিনুল ইসলাম বলেন, ডুমুরিয়ায় শান্তিপূর্ণভাবে সনাতন ধর্মালম্বিরা দুর্গাপূজা উদযাপন করবে। প্রতিটি মন্দিরে পুলিশ সদসস্যের পাশপাশি পর্যাপ্ত সংখ্যক আনসার বাহিনীর নারী ও পুরুষ সদস্য থাকবে। এছাড়া মন্দিরের পক্ষ থেকেও নিজস্ব নিরাপত্তারর জন্য স্বেচ্ছাসেবক সদস্যরাও দায়িত্বপালন করবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT