রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০১:১৭ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ ডামুড্যায় মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত।। ◈ চিরিরবন্দরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্দ্যোগে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ◈ কালিহাতীতে ট্রেনে কাটা পড়ে ২ বন্ধুর মৃত্যু ◈ বাংলাদেশ একদিন ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে,ভোলায় এমপি শাওন ◈ টাঙ্গুয়ার হাওরে নিষিদ্ধ কোনাজাল আটকের পর আগুনে পুড়ে ধ্বংস ◈ কালিহাতীতে মানবতার দেয়াল উদ্বোধন ◈ কুড়িগ্রামে ৪ বছর ধরে দুর্ভোগে লাখো মানুষ, উচ্চ আদালতের নির্দেশনার পরও সেতুর নির্মাণ কাজ বন্ধ ◈ ঘাটাইলে উচ্চ ফলনশীল বোরো ধানের বীজ ও সার বিতরণ ◈ ফুলপুরে পৌর কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা ◈ তাহিরপুরে নারী নির্যাতন বন্ধে,বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা

জেনে নিন ক্যাসিনো বা জুয়া নিয়ে কি বলছে ইসলাম

প্রকাশিত : ০৫:৪১ AM, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার ৪৯৬ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

একজন মুসলিম হিসেবে আমরা তখনই সুস্থ ও সুন্দর জীবন কাটাতে পারব যখন আমরা পবিত্র কোরানের অনুশাসন মেনে চলব। অত্যন্ত দুঃখের ব্যাপার যে আজ যুবসমাজ ইসলামী অনুশাসন থেকে বিচ্যুত হয়ে জুয়া ও মদপানের মতো জীবন ধ্বংসকারী কাজে আসক্ত হয়ে পড়েছে। জুয়াকে সুস্পষ্টভাবে কোরান ও হাদিসে হারাম ঘোষণা করা হয়েছে।

জুয়াকে আরবিতে ‘আল-কিমার’ ও ‘আল-মায়সির’ বলা হয়। এমন খেলাকে ‘আল-কিমার’ ও ‘আল-মায়সির’ বলা হয়, যা লাভ ও ক্ষতির সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকে। অর্থাৎ যার মধ্যে লাভ বা ক্ষতি কোনোটাই স্পষ্ট নয়। ইসলামের আবির্ভাবের আগে ও নবী করিম (সা.)-এর আগমনের সময় তৎকালীন মক্কায় নানা ধরনের জুয়ার প্রচলন ছিল। তিনি সবগুলোকে নিষিদ্ধ করেছেন।

জুয়া সম্পর্কে পবিত্র কোরআনে সুস্পষ্ট বর্ণনা এসেছে। আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘হে মুমিনগণ! মদ, জুয়া, মূর্তিপূজার বেদী ও ভাগ্য নির্ণায়ক শর ঘৃণ্য বস্তু, শয়তানের কাজ। সুতরাং তোমরা তা বর্জন করো, তাহলেই তোমরা সফলকাম হতে পারবে। শয়তান তো মদ ও জুয়ার মাধ্যমে তোমাদের মধ্যে শত্রুতা ও বিদ্বেষ সৃষ্টি করতে চায় এবং তোমাদের আল্লাহর স্মরণ ও নামাজ আদায়ে বাধা দিতে চায়। তবে কি তোমরা নিবৃত্ত হবে না।’ (সুরা মায়িদা, আয়াত: ৯০-৯১)

কোরআনে মদ ও জুয়াকে ঘৃণ্য বস্তু এবং শয়তানের কাজ বলা হয়েছে। এগুলো থেকে দূরে থাকার আদেশ দেওয়া হয়েছে। মদ-জুয়ার মাধ্যমে পরস্পর শত্রুতা ও বিদ্বেষ সৃষ্টি হয়। উপরন্তু এগুলোর মাধ্যমে শয়তান মানুষকে নামাজ ও আল্লাহতায়ালার স্মরণ থেকে বিমুখ রাখে। মদ-জুয়া হারাম হওয়ার বিষয়টি অস্বীকারের কোনো সুযোগ নেই।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT