রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৭:০৯ অপরাহ্ণ

শিরোনাম

শিগগিরই গ্রেপ্তার হতে পারেন রিয়া

প্রকাশিত : ০১:৩৫ PM, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ Sunday ৪৯ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

খুব শিগগিরই রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেপ্তার করতে পারে সিবিআই। ৩০৬ ধারা অর্থাৎ আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে।

সিবিআই তদন্তের দেখতে পেয়েছে যে, সুশান্ত সিং রাজপুত এর শারীরিক অবস্থা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে দেখা হওয়ার পর থেকে ধীরে ধীরে খারাপ হতে শুরু করেছিল।

তদন্তে দেখা যাচ্ছে রিয়া ও তার পরিবার মাদক নিতে এবং সুশান্তের অবসাদকে গাঁজা ও অন্যান্য মাদকদ্রব্য দিয়ে চিকিৎসা করার চেষ্টা করেছিলেন রিয়া।

জি নিউজ’র প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, রিয়া সবসময় তার বাড়িতে মাদকদ্রব্য রাখতেন। আর এই মাদকের যোগান দিতেন তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী।

যাতে সুশান্তের মাদক পেতে কোনো অসুবিধা না হয়। এভাবেই রিয়ার সঙ্গে থেকে মাদক আসক্ত হয়ে পড়েছিলেন প্রয়াত অভিনেতা। ক্রমশ সুশান্তের দিদিরা জানতে পারেন যে তাদের ভাই মাদক নিচ্ছেন। তখন রিয়ার থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছিলেন তার দিদিরা এবং নেশাও বন্ধ করতে বলেছিলেন।

কিন্তু সুশান্ত রিয়াকে ছাড়া থাকতে পারেননি। এরপরে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সুশান্তের দিদিদের সঙ্গে রিয়ার তর্ক হয়েছিল। রিয়া তখন সুশান্তকে সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন, আমার সঙ্গে থাকো অথবা আমায় বিয়ে করো। না হলে নিজের পরিবারের কাছে চলে যাও।

এর পরেই সুশান্তের সঙ্গে তার পরিবারের যোগাযোগ কমতে থাকে। পরিবার থেকে ক্রমশ দূরে চলে যান সুশান্ত। তবে দিদিরা তাকে নিয়ে সবসময় চিন্তিত থাকতেন। ৮ জুন অর্থাৎ যেদিন দিশা সালিয়ান এর মৃত্যু হয় সেদিন সুশান্ত খুব চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন। সেদিন রিয়ার সঙ্গে খুব ঝগড়া হয়েছিল।

তার এবং তারপরের রিয়া বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। তদন্তে এখনো পর্যন্ত মনে করা হচ্ছে অতিরিক্ত মাদক নেওয়া শুরু করেছিলেন সুশান্ত এবং রিয়ার সঙ্গে তার দূরত্ব মেনে নিতে পারেননি। তাই আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছিলেন তিনি। দিদিদের সঙ্গে জিয়ার ঝগড়াও তিনি নাকি মেনে নিতে পারেননি।

আর তাই এই কঠিন সিদ্ধান্ত তিনি বেছে নিয়েছিলেন। তবে দিল্লিতে রিয়ার আইসিআইসিআই ব্যাংকে কোনো রকম টাকা ট্রান্সফার হওয়ার প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এখনো পর্যন্ত তদন্তে এমন কিছু উঠে আসেনি যা থেকে বোঝা যায় যে এটি খুন। তাই মনে করা হচ্ছে সুশান্ত আত্মঘাতী হয়েছিলেন।

কিন্তু সুশান্তের এই আত্মহত্যার পিছনে অতিরিক্ত মাদক সেবন এবং পরিবার থেকে দূরে চলে যাওয়া একটি বিশেষ কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। আর এই দু’টি ঘটনায় ঘটেছিল রিয়া চক্রবর্তীর জন্য। রিয়ার সংস্পর্শে এসে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিলেন সুশান্ত। আর তাই রিয়াকে খুব শিগগিরই সিবিআই গ্রেপ্তার করতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT