রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০১:৩১ অপরাহ্ণ

শিরোনাম

গোয়াইনঘাটে প্রশংসা কুড়াচ্ছে আলেমদের ‘ইত্তেহাদ কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার’

প্রকাশিত : ০৩:১০ PM, ১৮ জুলাই ২০২১ রবিবার ১১৮ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

প্রযুক্তি ডেস্ক : দেশের নাগরিকদের বড় একটি অংশ মাদরাসার শিক্ষার্থী এবং মাদরাসা থেকে পড়াশোনা সমাপ্ত করা আলেমরা। যাদের বেশিভাগের কর্মক্ষেত্র মসজিদ মাদরাসা ও ধর্মীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। তবে, আলেমদের অনেকেই এখন যুক্ত হচ্ছেন নানা পেশায়। কেউ বেছে নিচ্ছেন ব্যবসার পথ। কেউ করছেন সাংবাদিকতা। আবার কেউ বা করছেন সমাজসেবা। কেউ করছেন কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার। আলেম হয়েও যে ব্যবসা করা যায়-এ বাস্তবতাকে স্বীকার করছেন এখন অনেকেই।

সীমান্ত এলাকা গোয়াইনঘাট উপজেলা। শিক্ষা-সংস্কৃতি ও অর্থনীতি— কোনোদিক থেকে পিছিয়ে নেই এ জনপদ। তবে তথ্য-প্রযুক্তির ছোঁয়া না লাগায় দৃষ্টিনন্দন এ উপজেলাটি আজ অনেকটা পিছিয়ে রয়েছে। কারিগরি শিক্ষায় গোয়াইনঘাটবাসীকে এগিয়ে নিতে এবং বেকার তরুণ যুবকদের বেকারত্ব দূর করতে ‘ইত্তেহাদ কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার’ যাত্রা শুরু করেছে।

গোয়াইন নদীর তীরে অবস্থিত গোয়াইনঘাট উপজেলা বাজার। বাজারে রয়েছে স্কুল-কলেজ, মাদরাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সেখানে কিছু দিনের ব্যবধানে গড়ে উঠেছে কয়েকটি কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টারও। এর মধ্যেই শত শত প্রশিক্ষণার্থী এবং সাধারণ মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে তরুণ আলেমদের ইত্তেহাদুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন পরিচালিত ইত্তেহাদ কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার।  বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত আইসিটি নলেজ লি. এর অধিভুক্ত প্রতিষ্ঠানটির উদ্বোধন করা হয় গত বছর ৭ সেপ্টেম্বর।

সুদক্ষ ও অভিজ্ঞ ট্রেইনার এবং প্রশিক্ষণার্থীদের চাহিদা অনুযায়ী প্রশিক্ষণ প্রদান, মহিলাদের জন্য পৃথক ব্যাচ, গরিব-মেধাবী, প্রতিবন্ধী, নামাজি-দাড়িওয়ালা এবং মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের জন্য বিশেষ ছাড়ে শুক্রবার বাদে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ৬টি শিফটে ধারাবাহিক ক্লাস চলে। ইতোমধ্যে প্রায় ৫০ জন চূড়ান্ত পরীক্ষা দিয়ে সরকার অনুমোদিত সার্টিফিকেট হাতে পেয়েছেন।

ট্রেনিং সেন্টারের পরিচালক মাওলানা সুলতান মাহমুদ বিন সিরাজ বলেন, আমাদের গোয়াইনঘাট অন্যান্য দিক দিয়ে এগিয়ে গেলেও তথ্য-প্রযুক্তিতে অনেক পিছিয়ে রয়েছে। বিশেষ করে আলেম সমাজ এ বিষয়গুলোকে তেমন গুরুত্ব দেন না। অথচ তথ্য-প্রযুক্তির ছোঁয়ায় মানুষ সবধরনের সুবিধা পাচ্ছে এবং দেশ বেকারমুক্ত হচ্ছে। কম্পিউটার আজ জীবনের একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কর্মজীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে কম্পিউটার ব্যবহার বাধ্যতামূলক হয়ে গেছে। যদিও গোয়াইনঘাটে আরো কিছু সেন্টার আছে, তবে আলেমসমাজের জন্য আমাদের এ সেন্টার। যেখানে তাদের সর্বোচ্চ সুবিধা দিয়ে ট্রেনিং দেওয়া হয়।

খুব কম দিনে বেশ পরিচিতি লাভ করেছে সেন্টারটি। আলেমদের দ্বারা পরিচালিত একটা ট্রেনিং সেন্টার এতো কম সময়ে এতো দূর এগিয়ে যাবে-কেউ ভাবেনি। মানসম্মত প্রশিক্ষণ এবং দক্ষ পরিচালনায় এ পর্যন্ত এসেছে বলে স্থানীয়রা মনে করছে।

প্রশিক্ষণার্থী মাহবুব আহমদ বলেন, প্রতি স্টুডেন্টকে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে ক্লাস করানো হয়। কোর্স ফি, ক্লাস ডিউরেশনসহ সবকিছুতে আমরা প্রচুর সুবিধা পাচ্ছি। স্যারেরা যত্ন ও বন্ধুত্বসুলভ আচরণের মাধ্যমে আমাদের শেখান।

স্থানীয় বাসিন্দা নাজমুল ইসলাম বলেন, ইত্তেহাদ কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার অল্প অনেক সুনাম অর্জন করেছে। খুব ভালো ও গুরুত্ব সহকারে ছাত্রদের শিক্ষা দেওয়া হয়। আমরা এর সর্বাঙ্গীণ সফলতা কামনা করি।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT