রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বুধবার ০৬ জুলাই ২০২২, ২২শে আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

০৮:১৪ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভিজিএফ’র চাউল বিতরণ। ◈ মোমেন সরকার সিরাজকান্দি দাখিল মাদ্রাসার পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত ◈ দেশবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান। ◈ ছাতকের খালেদ উদ্দিন লন্ডনে মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেছে। ◈ নওগাঁর চাঞ্চল‍্যকর সড়ক দূর্ঘটনায় ৪ শিক্ষকসহ ৫ জনের মৃত‍্যুর জন‍্য দায়ী ট্রাক চালককে আটক করেছে র‍্যাব- ৫ ◈ তাহিরপুর নিম্নাঞ্চলে ঈদের আনন্দ নয়,মাথা গোঁছার ঠাঁই খুঁজছেন বানভাসিরা  ◈ শ্রীনগরে গণপরিবহণের অভাবে যাত্রী ভোগান্তি! ◈ কালিগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাদক ও চিংড়ি ব্যবসায়ীকে জেল জরিমানা ◈ ভূঞাপুরে টুংটাং শব্দে মুখরিত কামারপল্লী  ◈ বেনাপোল গোগা সীমান্তে ১৮ কেজি ভারতীয় রুপা আটক

গোপালগঞ্জে চরম অনিশ্চয়তায় পাট চাষীরা

প্রকাশিত : 02:58 AM, 15 August 2019 Thursday 716 বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

 

সোনালী আঁশ পাটকে বিবেচনা করা হয় দেশের প্রধান অর্থকারী ফসল হিসেবে। কিন্তু এ বছর গোপালগঞ্জে পাটের ফলন ভাল হলেও খাল-বিলে পানি না থাকায় পাট ঠিকভাবে পঁচাতে পারছেন না কৃষকরা। এক পানিতে বার বার পাট পঁচানোর ফলে পাটের আশঁ ভাল না হওয়ায় ও কালো রং ধারন করায় দাম নিয়ে আশংকায় রয়েছেন কৃষকেরা।

গোপালগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে জানাগেছে, এ বছর গোপালগঞ্জের ৫ উপজেলায় সাড়ে ২৫ হাজার হেক্টর জমিতে পাটের আবাদ করা হয়েছিল। আর এ সোনালি আঁশ পাট নিয়ে বিপাকে পড়েছেন চাষিরা। এ বছর গোপালগঞ্জে পাটের ফলন ভালো হলে শেষ সময়ে দেখা দিয়েছে অনাবৃষ্টি। ফলে পাট গাছ বড় হলেও পানির অভাবে গাছ পূড়ে যাওয়ায় অপরিপক্ক পাট কেটে ফলতে হচ্ছে কৃষকদের।

সেই সাথে বৃষ্টি অভাবে খাল-বিল, ডোবা, নালায় পানি না থাকায় চাষীরা তাদের উৎপাদিত পাট পঁচাতে পারছেন না। অল্প পানিতে অধিক পাট পঁচানোর ফলে আঁশ কালো রং ধারন করেছে। ফলে বাজারে আশানুরুপ দাম পাচ্ছেন না তারা। যে কারনে লোকসানের মুখে রয়েছে জেলার কয়েক হাজার পাট চাষী।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোষেরচর এলাকার পাটচাষী আক্কাস আলি, কালাচাদ বিশ্বাস, টুঙ্গিপাড়া উপজেলার কুশলি এলাকার পাটচাষী রহমান শেখ ও হবিবর মোল্ল্য জানান, অল্প পানিতে অধিক পাট পঁচানোর ফলে আঁশ কালো রং ধারন করছে। ফলে বাজারে আশানুরুপ দাম পাচ্ছেন না তারা। যে কারনে লোকসানের মুখে রয়েছে জেলার হাজার হাজার পাট চাষী। আড়তদার জাহাঙ্গীর হোসেন, মো: হান্নান শেখ বলেন, এবছর পাটের আবাদ ভাল হলেও পানির অভাবে পাট পচাতে পারেছেন না কৃষকরা। অল্প পানিতে বারবার পাট পচানোয় আশেঁর রং কালো হয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে ১৫’শ থেকে ১৯’শ টাকায় প্রতি মন বিক্রি হলেও পাটের আঁশ ভালো না হওয়ায় ও কালো রং ধারন করায় পাটের দাম কমে যেতে পারে বলে মনে করছেন তারা।

গোপালগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের, উপ-পরিচালক, রমেশ চন্দ্র ব্রহ্ম বলেছেন, বর্ষার পানি না হওয়ার কারনে পাট ঠিকভাবে পঁচাতে না পারায় পাটের আঁশ খারাপ হওয়ায় ও কালো রং ধারন করায় কৃষকরা চাহিদামত দাম পাচ্ছেন না।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT