রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

মঙ্গলবার ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১১:২৭ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ ভিবিডি গোপালগঞ্জ জেলা কর্তৃক আয়োজিত “আনন্দ আহার” ◈ সম্প্রীতির হবিগঞ্জ সংগঠনের জেলা শাখার সিনিয়র সদস্য নির্বাচিত হলেন শুভ আহমেদ ◈ কবিতা : শীতের পিঠা – মোঃ শহিদুল ইসলাম ◈ ধামইরহাটে জঙ্গিবাদ মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে যুবলীগের বিক্ষোভ সমাবেশ ◈ ধামইরহাটে দার্জিলিং জাতের কমলার চারা রোপন ◈ ধামইরহাটে মাস্ক না পরায় বিভিন্ন শ্রেনি পেশার মানুষের জরিমানা, সচেতন করতে রাস্তায় নামলেন এসিল্যান্ড ◈ সকল ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধীদের প্রবেশগম্যতা নিশ্চিত করার আহ্বান ◈ ধামইরহাটে অজ্ঞাত রোগে মাছে মড়ক, ৩০ লাখ টাকার ক্ষতিতে মৎস্যচাষী’র হাহাকার ◈ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলেই জনকল্যানমূলক কাজ সবচেয়ে বেশি হয়েছে- এমপি শাওন ◈ উদয়কাঠী ইউনিয়ন পরিষদের স্মার্ট কার্ড বিতরনের উদ্বোধন করেন চেয়ারম্যান ননি

গাছ উজাড় করে সড়ক সংস্কার

প্রকাশিত : ০৪:৫৭ AM, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ Saturday ১৮০ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ-রানীরহাট সড়কের গাছ উজাড় করে ১৭ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার করা হচ্ছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বন বিভাগ ও জেলা পরিষদের অনুমতি না নিয়েই কয়েক হাজার বিভিন্ন প্রজাতির গাছ উপড়ে ফেলে। যার আনুমানিক মূল্য ১৫ লাখ টাকা।

জানা গেছে, তাড়াশ উপজেলা সদরের পশ্চিম ওয়াবদা বাঁধ থেকে রানীরহাট পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার সড়ক এ বছর সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) প্রশস্ত, মজবুতিকরণ ও মেরামতের উদ্যোগ নেয়।

এ লক্ষ্যে জেলা সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় রাজশাহী অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীর কর্যালয় থেকে দরপত্র আহ্বান করা হলে ৩০ কোটি ৯৮ লাখ টাকা ব্যয়ে কার্যাদেশ পায় মেসার্স ময়েন উদ্দিন (বাঁশি) লিমিটেড। সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, কার্যাদেশ পাওয়ার পর গত ২৫ মে রাস্তাটি উদ্বোধনের পর আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।

দরপত্র অনুযায়ী রাস্তাটির উভয়পাশে তিন ফুট করে ছয় ফুট প্রশস্তকরণের কথা থাকায়, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এক্সেভেটর (খনন যন্ত্র) দিয়ে কাজ শুরু করে। কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়ায় জেলা পরিষদের লাগানো হাজার হাজার বিভিন্ন প্রজাতির গাছ।

এ সময় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বন বিভাগ ও জেলা পরিষদের অনুমতি না নিয়েই কয়েক হাজার বিভিন্ন প্রজাতির গাছ উপড়ে ফেলে।

এ প্রসঙ্গে সিরাজগঞ্জ জেলা সহকারী বন কর্মকর্তা ইব্রাহীম খলিল বলেন, এভাবে গাছ কাটার কোনো নিয়ম নেই। নিয়ম অনুযায়ী বন বিভাগে আবেদন করার পর, বন বিভাগ মূল্য নির্ধারণ করে গাছ কাটার অনুমতি দিলেই তবে সরকারি বা বেসরকারি কোনো প্রতিষ্ঠান গাছ কাটতে পারবে। কিন্তু এ ক্ষেত্রে সড়ক ও জনপথ বিভাগ বা জেলা পরিষদ বন বিভাগের কোনো অনুমতি নেয়নি। রাস্তাটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের হলেও সামাজিক বনায়ন করেছে সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদ।

সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম প্রামাণিক বলেন, আমরা জেলা পরিষদকে চিঠি দিয়েছি প্রকল্প এলাকার গাছ কাটার জন্য।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT