রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৭:৫৩ পূর্বাহ্ণ

কোটি টাকার ফুল বিক্রি

প্রকাশিত : ০৬:৩৫ PM, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০ Saturday ১০১ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

কবি সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত কোটি টাকার ফুল বিক্রির কথা শুনে হয়তো খুশিই হতেন। তিনি ‘ফুলের ফসল’ কবিতায় অর্ধেক পয়সা জুটলেও অনুরাগীদের ফুল কেনার পরামর্শ দিয়েছিলেন।

১৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ছিল বসন্ত বরণের দিন। একই সঙ্গে ছিল ভ্যালেন্টাইনস ডে। ভালোবাসার উৎসব রাঙিয়ে তুলতে অনুরাগীরা এ দিন ফুলের শরণাপন্ন হয়েছেন। যে কারণে ফুলের দোকানগুলোতে ছিল চোখে পড়ার মতো ভিড়। বিক্রিও হয়েছে আশাতীত।

ভালোবাসা দিবস ঘিরে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে ফুলের চাহিদা ছিল কয়েকগুণ। রাজধানীর শাহবাগের পাইকারি ফুলের মার্কেটেই প্রায় কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়েছে। শনিবার মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

একাধিক ব্যবসায়ী রাইজিংবিডিকে জানান, সারা বছর ফুলের ব্যবসা চললেও ব্যবসা জমজমাট হয় পয়লা ফাল্গুন, ভালোবাসা দিবসসহ কয়েকটি দিবসে। চার বছর আগেও দেশে ফুলের বাজারে মাত্র কয়েক ধরনের ফুল পাওয়া যেত। কিন্তু বর্তমানে দেশে বাণিজ্যিকভাবে ফুল চাষ বেশি হওয়ায় ও আমদানি করায় বিভিন্ন রঙের ফুল পাওয়া যাচ্ছে।

এর মধ্যে লাল গোলাপ, জারবেরা, গ্লাডিওলাস, অর্কিড, কসমস, ডালিয়া, টিউলিপ, কালো গোলাপ, ঝুমকা লতা, গাজানিয়া, চন্দ্রমল্লিকা উল্লেখযোগ্য। বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটির কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য আবদুর রহমান বলেন, ‘আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় দেশে ফুলের উৎপাদন ভালো হয়েছে। এ মাসে পাইকারি ও খুচরা পর্যায়ে দেশে মোট প্রায় ১৫০ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে। এমনিতেই শাহবাগে প্রতিদিন প্রায় ৩০ লাখ টাকার ফুল কেনাবেচা হয়। দিবস এলে এই অঙ্ক বেড়ে যায়। যেমন এবারও আনুমানিক ১ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়েছে।’

সারা দেশে ভালোবাসা দিবসে প্রায় ২০ থেকে ৩৫ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয় জানিয়ে আবদুর রহমান বলেন, ‘ভালোবাসা দিবসে রাজধানী ঢাকায় যে ফুল বিক্রি হয়েছে তার সিংহভাগই শাহবাগ থেকে হয়েছে।’

শাহবাগের অনন্যা পুষ্প বিতানের মালিক লোকমান হোসেন রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘ভালোবাসা দিবসে পাইকারি বাজারে প্রতিটি গোলাপ মান ভেদে ৫ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। জারবেরা ১০ থেকে ২৫ টাকা, গ্লাডিওলাস ১০ থেকে ১৫ টাকা ও রজনীগন্ধা ৫ থেকে ১০ টাকা দামে বেচাকেনা হয়েছে। তবে আজ ১-৩ টাকা কমে ফুল বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া ২০০ থেকে ৪৫০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে এক হাজার গাঁদা ফুল।

তবে খুচরা বাজারে একই ফুল বিক্রি হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ দামে। ৩০০ থেকে ৭৫০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে এক হাজার গাঁদা ফুল। প্রতিটি গোলাপ ১৫ থেকে ৬০ টাকা, জারবেরা ১৫ থেকে ৪০ টাকা, গ্লাডিওলাস ১৮ থেকে ৪০ টাকা ও রজনীগন্ধা প্রতি স্টিক ৫ থেকে ১০ টাকা দরে বেচাকেনা হচ্ছে। আর গাঁদা ফুলের মালা বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৭০ টাকা দরে। চায়না গোলাপ অন্য সময় ৫০ টাকা হলেও ভালোবাসা দিবসে ১০০ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফজলুর রহমান শান্ত জানান, ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে ফুল দোকানিরা গলাকাটা ব্যবসা করছে। শাহবাগ থেকে চারটি লাল গোলাপ কিনেছি ২২০ টাকা দিয়ে। যদিও অন্য সময় চারটি লাল গোলাপের দাম মাত্র ৬০ থেকে ৮০ টাকা।

ঢাকা কলেজছাত্র সজিব বলেন, আজ ফুলের দাম কম। ভালোবাসা এক দিনের জন্য নয়, প্রতিদিনের জন্য। তাই আজকে এলাম। কম দামে ফুলও পেলাম।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT