রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বুধবার ১৯ মে ২০২১, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০২:৫০ পূর্বাহ্ণ

‘করোনা নয়, লকডাউন আমাদের নিঃস্ব করেছে’

প্রকাশিত : ০৪:১১ PM, ২১ এপ্রিল ২০২১ বুধবার ৪১ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

‘করোনার চাইতে লকডাউন আমাগো নিঃস্ব করেছে। ঢাকায় চার জনের সংসার, ছেলে মেয়ে ‌স্কুলে পড়ে। বাড়ি ভাড়া দিতে হয়। আজ প্রায় এক মাস কোন ইনকাম নেই। পেট তো আর কোন বিধি-নিষেধ মানতে চায় না। জীবনের সব পুঁজি দিয়ে ভ্রাম্যমাণ এই টং দোকানটা আমার একমাত্র সম্বল। রাস্তায় গাড়ি চলছে, অফিস চলছে, কলকারখানা, গার্মেন্টস চলছে, হোটেল চলছে শুধু আমরাই না খেয়ে আছি, আমাগো দোকানেই বন্ধ।’

কথাগুলো বলছিলেন সেগুনবাগিচা এলাকার টং দোকান ব্যবসায়ী মোঃ মিন্টুর। বুধবার (২১ এপ্রিল) রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকায় বন্ধ রাখা টং দোকানেরে সামনে দাঁড়িয়ে বলা তার কথাগুলো মেশানো ছিলো দুঃখ, আক্ষেপ, অভিযোগ ও ক্ষোভ।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত লকডাউন চলছে। দ্বিতীয় দফা লকডাউনের আজ শেষ দিন। সরকার আরও এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে। এতে হকার, ভাসমান দোকান এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা পড়েছেন চরম বিপদে। লকডাউনে খপ্পড়ে পড়ে অনেকেই আজ নিঃস্ব, পথে বসেছে।

সরকারের লকডাউনের যৌক্তিকতায় প্রশ্ন তুলে মিন্টু জানালেন, সরকার কোন যুক্তিতে আমাদের মতো গরিবের দোকান বন্ধ রেখেছে। আমাদের জন্য কি কোন সাহায্যের ব্যবস্থা করেছে। প্রায় এক মাস হচ্ছে, এখনো পাইনি কোন সাহায্য ও সহযোগিতা। কিভাবে পরিবারের সংসার চালাব।

মিন্টুর মতো আরেক ভাসমান ব্যবসায়ী জানালেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাড়ছে এটা আমরা জানি কিন্তু এভাবে লকডাউন দিলে আমাদের পেটে লাথি মারা ছাড়া আর কিছু নয়। যদি এমন হতো যে, কোন কিছুই চলবে না সব বন্ধ থাকবে তাহলে ঠিক ছিলো, কিন্তু সবকিছু চলবে আর আমরা দোকান করতে পারবো না! এটা মানতে কষ্ট হয় আমাদের।

দোকানদারদের অভিযোগ, সরকার গরিবদের মেরে করোনাভাইরাস ধ্বংস করতে চাচ্ছে।

সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়ে হকার ও ভাসমান ব্যবসায়ীরা জানান, সরকারের কাছে আমাদের অনুরোধ তাড়াতাড়ি এই লকডাউন খুলে যেন দেয়। বেশি কিছু নয় ডাল ভাত খেয়ে বেঁচে থাকতে চাই। আজ অনেক দিন ধরে আমার এই চায়ের দোকান খুলতে পারছি না। এখন এমন দিন যাচ্ছে বেশিরভাগ সময় না খেয়ে থাকি। আমরা মনে করি করোনা নয় সরকারের দেয়া লকডাউন আমাদের নিঃস্ব করে দিয়েছে। আমরা চাই আমাদের দিকে তাকিয়ে সরকার লকডাউন খুলে দিক।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT