রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

মঙ্গলবার ০৯ মার্চ ২০২১, ২৫শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৭:৫৪ পূর্বাহ্ণ

এস কে সুর ও শাহ আলমের ব্যাংক হিসাব তলব

প্রকাশিত : ০২:২৫ PM, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ মঙ্গলবার ৫৮ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর সিতাংশু কুমার সুর চৌধুরীর ও বর্তমান নির্বাহী পরিচালক (ইডি) মো. শাহ আলমের ব্যাংক হিসাব তলব করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। একই সঙ্গে এসকে সুর চৌধুরীর স্ত্রী সুপর্ণা সুর চৌধুরী এবং মো. শাহ আলমের দুই স্ত্রী শাহীন আক্তার শেলী ও নাসরিন বেগম এবং তাদের সন্তানদের ব্যাংক হিসাবও চাওয়া হয়েছে।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এনবিআরের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সেল থেকে পাঠানো এক চিঠি সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পৌঁছেছে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার এনবিআর এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে পাঠিয়েছে।

চিঠিতে আগামী ৭ কর্মদিবসের মধ্যে তাদের গত ২০১৩ সাল থেকে সব ধরনের লেনদেনের তথ্য জানাতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, এসব করদাতা ও তার পরিবারের অন্যান্য সদসা-স্ত্রী সন্তানের একক বা যৌথ নামে অথবা তাদের আংশিক মালিকানাধীন অন্য যে কোন প্রতিষ্ঠানের নামে আপনার প্রতিষ্ঠানে বা ব্যাংকে পরিচালিত যে কোন মেয়াদি আমানত হিসাব (এফডিআর হিসাবসহ যেকোনো ধরনের বা নামের মেয়াদি আমানত হিসাব), যেকোনো ধরনের বা মেয়াদের সঞ্চয়ী হিসাব, চলতি হিসাব, ঋণ হিসাব (মঞ্জুরিপত্রের কপিসহ), ফরেন কারেন্সি অ্যাকাউন্ট, ক্রেডিট কার্ড, লকার বা ভল্ট, সঞ্চয়পত্র বা অনা যেকোনো ধরনের সেভিংস ইন্সট্রুমেন্ট, ইনভেস্টমেন্ট স্কিম বা ডিপোজিট স্কিম, শেয়ার হিসাব (বিও একাউন্ট) বা অন্য যেকোনো ধরনের বা নামের হিসাব পরিচালিত হয়ে থাকলে উক্ত হিসাবগুলো ১ জুলাই ২০১৩ থেকে হালনাগাদ হিসাব বিবরণী এই পত্র প্রাপ্তির ৭ দিনের মধ্যে পাঠানোর অনুরোধে করা হলো। এছাড়া পূর্বে ছিল কিন্তু বর্তমানে বন্ধ হয়ে গেছে এ সকল হিসাবের তথ্য প্রদান করতে হবে।

জানা গে‌ছে, পিপলস লিজিং ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের মতো একাধিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে দিয়েছে প্রশান্ত কুমার হালদার (পি কে হালদার) নেতৃত্বে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। যাদের সহযোগিতা করার অভিযোগ উঠেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর এসকে সুর চৌধুরী ও নির্বাহী পরিচালক শাহ আলমের বিরুদ্ধে। বিশেষ করে ঘুষের বিনিময়ে হাজার হাজার কোটি টাকার লোপাটের তথ্য চাপা দেওয়ার অভিযোগ উঠে‌ এই কর্মকর্তা‌দের বিরু‌দ্ধে।

এ বিষয়ে আদালতে ১৬৪ ধারায় ঘুষ কেলেঙ্কারির স্বীকারোক্তিও দেন ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ে সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও পিপলস লিজিংয়ের সাবেক চেয়ারম্যান। তাদের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীরাও। ইতিমধ্যে বিষয়‌টি তদ‌ন্তে উচ্চ পর্যা‌য়ে ক‌মি‌টি গঠন ক‌রে‌ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এসব অভিযোগের কারণে গত ৪ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব থেকে নির্বাহী পরিচালক শাহ আলমকে সরিয়ে দি‌য়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এসকে সুর চৌধুরী ২০১৮ সালের ৩১ জানুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নরের পদ থেকে অবসরে যাওয়ার পর তাকে বাংলাদেশ ব্যাংকের উপদেষ্টা করা হয়। তবে, বর্তমানে তিনি অবসরে আছেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT