রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২, ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০২:১৯ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ আ’লীগ নেতা সৈয়দ মাসুদুল হক টুকুর পিতার ২১ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ ◈ ঘাটাইল আশ্রয়ন প্রকল্প পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক ◈ শীতার্তদের মুখে হাসি ফোটালেন সিদ্ধিরগঞ্জ মানব কল্যাণ সংস্থা ◈ হরিরামপুরে স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে বন্ধে স্ত্রীর অনশন ◈ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গরীব-দুঃখীদের পাশে রয়েছেন সাবেক সিনিয়র সচিব সাজ্জাদুল হাসান… ◈ কালিগঞ্জের কৃষ্ণনগর করোনা এক্সপার্ট টিমের কম্বল বিতরণ ◈ পেইড পিয়ার ভলান্টিয়ারদের চাকরী স্থায়ীকরণের দাবিতে মানববন্ধন ◈ ফুলবাড়ীতে শীতার্তাদের মাঝে ডিয়ার এক্স টিমের শীতবস্ত্র বিতরণ ◈ রানীরবন্দর রুপালী ব্যাংক লিঃ ব্যবস্থাপকের বিদায় ও বরণ ◈ শার্শায় বাইক ছিনতাই করে চালককে হত্যায় জড়িত ৩ আসামী আটক

আগাম শিম চাষে লাভবান হচ্ছে চৌগাছার কৃষক

প্রকাশিত : ০৮:৩৯ AM, ১১ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার ৬২১ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

যশোরের চৌগাছায় আগাম শিম চাষ করে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা। ভালো ফলন আর দাম বেশি হওয়ায় তারা খুশি। এ উপজেলার মাটি ও আবহাওয়া শিম চাষের জন্য বেশ উপযোগী। সে জন্য ধানের জমিতে মাঝে মাঝে নালা কেটে মাটি উঁচু করে নিচু জমিতে এখন শিম চাষ করছেন এসব কৃষকরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এ বছরে শিম চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৬৫ হেক্টর জমিতে। কিন্তু অনুক‚ল আবহাওয়া ও ভালো ফলনের কারণে এ বছর প্রায় ৪৫০ হেক্টর জমিতে শিম চাষ হচ্ছে। এই অঞ্চলের মাটি ও আবহাওয়া বিবেচনায় ‘রূপভান’ ও ‘ইফশা’ নামের দুটি জাতের শিম বেশি চাষ হচ্ছে। সাধারণত বীজ রোপণের ৩৫-৪০ দিনের মধ্যে শিমের লতায় ফুল আসতে শুরু করে। অতি বর্ষা না হলে প্রায় ৫ মাস স্থায়ী হয় শিমের মাচা।

উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের মাঠে ঘুরে দেখা গেছে যে মাঠের মাঝে শিমের ফুলে ফলে শোভা পাচ্ছে শিমের মাচা। নীল-বেগুনি রঙের শিম ক্ষেতগুলো শরতের আকাশের সঙ্গে মিতালীর নয়ানাভিরাম দৃশ্য। শিমের রুগ্ণ ফুল ছাড়িয়ে ফেলা, ক্ষেতের আগাছা পরিষ্কার করা এবং কীট পতঙ্গ প্রতিরোধসহ নানা কাজে সময় ব্যস্ত রয়েছেন উপজেলার এসব শিম চাষির।

শিমের ক্ষেতে কথা হয় গরিবপুর গ্রামের শিম চাষি বাবুল হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘প্রায় ৮-৯ বছর ধরে আমি এভাবে শিম চাষ করে আসছি। কম বেশি প্রতি বছরই লাভবান হচ্ছি। এ বছরও বাজারে শিমের দাম ভালো। প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০-৮৫ টাকা দরে। এ বছরে ১ বিঘা জমিতে শিম চাষ করেছি। এ পর্যন্ত খরচ হয়েছে ১৫-২০ হাজার টাকা। শিম বিক্রি করে পেয়েছি ১০-১২ হাজার টাকা। অতি বর্ষা না হলে আশা করছি ৬০-৭০ হাজার টাকার শিম বিক্রি করতে পারব’।

উপজেলায় সব থেকে বেশি শিম চাষ হয় পাতিবিলা, জগদেশপুর, ধুলিয়ানী ইউনিয়নে। জগদেশপুর ইউনিয়নের মাড়–য়া গ্রামের শুকুর আলী জানান, আড়াই বিঘা জমিতে এপর্যন্ত খরচ হয়েছে ৫০-৫৫ হাজার টাকা। তিনি বিক্রি করেছেন এক লাখের টাকার ওপরে। তিনিও আশা করছেন এ বছরে অন্য বছরের তুলনায় বেশি লাভ হবে।

নারায়ণপুরের গ্রামের হরিনাথ দত্ত, সিংহঝুলীর আব্দুল আলীম, খাইরুল ইসলাম, সাবের আলী, ফজের আলী, লিটনসহ আরও কয়েক চাষির কথা বললে তারা বলেন, এ বছর আবহাওয়া ভালো থাকায় শিম চাষে আমরা বেশ লাভবান হব।

এ বিষয়ে উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা রইস উদ্দিন বলেন, এখানকার মাটি শিম চাষের জন্য উপযোগী। শিম চাষের প্রধান বাধা অতিরিক্ত বর্ষা। বর্ষার পানি ক্ষেতে জমে থাকলে স্যাঁতসেতে মাটিতে শিম গাছের গোড়ায় নেমাটট (কৃমি জাতীয় পোকা) আক্রমণ করে। নেমাটটের আক্রমণ গাছের শিকড় নষ্ট করে দেয়। যে কারণে গাছ মারা যেতে পারে। তা ছাড়া অতিরিক্ত বর্ষা হলে শিমের ফুল পচে কুশি গজানোর ক্ষমতা হারায়। তাই শিমগাছের গোড়া পচা রোগ দেখা দিলে ছত্রাক নাশক বা পানিতে পরিমিতভাবে বোরিক এসিড মিশিয়ে স্প্রে করলে উপকার পাওয়া যায় বলে তিনি বলেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT