রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

রবিবার ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ৬ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

০৮:২১ পূর্বাহ্ণ

খালেদার ছবি দিয়ে পোস্টার : ইসির কাছে প্রশ্ন নৌ প্রতিমন্ত্রীর

প্রকাশিত : ০৭:২৮ PM, ১৪ জানুয়ারী ২০২০ Tuesday ৪৩ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

সিটি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীরা আদালতের দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার ছবি দিয়ে কিভাবে পোস্টার করেছে- নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কাছে সেই প্রশ্ন রেখেছেন নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের কাছে আমি প্রশ্ন রাখতে চাই, একজন অপরাধীর ছবি সংবলিত পোস্টার কিভাবে করা হয়?

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) বিকালে স্বেগুন বাগিচার কচিকাঁচার মেলার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জয়বাংলা সাংস্কৃতিক ঐক্যজোটের আয়োজনে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের’ আলোচনা সভায় তিনি এ প্রশ্ন রাখেন।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘আজকে যখন ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে কথা হচ্ছে, তখন নির্বাচন কমিশন থেকে শুরু করে বিভিন্ন জায়গা থেকে লেভেল প্লেয়িং নিয়ে কথা হচ্ছে। আমি নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশ্যে বলতে চাই। মাহবুব আলী সাহেব আপনি নির্বাচন কমিশনার হিসেবে শপথ নিয়েছেন, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বলতে আমরা কি বুঝি?

‘বাংলাদেশে যখন মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিরা নির্বাচন করবে আর সেই নির্বাচনে যখন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি, স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি সেই নির্বাচন কখনও লেভেল প্লেংয়িং ফিল্ড হতে পারে না। লেভেল প্লেয়িং তখনই হবে যখন একজন মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধে পক্ষের আরেকজন নির্বাচন করবে।’

অপরাধীর ছবি সংবলিত পোস্টার দিয়ে নির্বাচন করার অধিকার নেই দাবি করে নৌ-প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান যে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন, কিন্তু ঘাতকরা সেই সুযোগ বঙ্গবন্ধুকে দেয় নাই। তারা নির্মমভাবে হত্যা করেছে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের। আমাদের মনের মধ্যে অনেক কষ্ট আছে, ব্যথা আছে। তারপরেও আইনের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল আছি, তার মানে এই নয় এই ধরণের যুদ্ধাপরাধী আর স্বাধীনতা বিরোধী যারা আছে তাদের মেনে নিব। বাংলার মানুষ কখনও এই স্বাধীনতা বিরোধীদের মেনে নেবে না।’

স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিকে চিরতরে নির্মূল করতে হবে জানিয়ে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘আমরা স্বাধীনতার সুখ তখনই অনুভব করবো, যখন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণ হবে। আমরা স্বাধীনতার সুখ তখনই অনুভব করবো যখন দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পদার্পণ করবে। এই স্বাধীনতার সুখ অনুভব করার সবচেয়ে বড় অন্তরায় হচ্ছে বিএনপি জামায়াত, এই স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি। তাদেরকে শুধু দমন করলে হবে না, তাদেরকে শুধু নিয়ন্ত্রণ করলে হবে না, তাদেরকে চিরতরে নির্মূল করার মধ্য দিয়ে আমাদের এই নিরন্তর সংগ্রামকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

জয় বাংলা সাংস্কৃতিক ঐক্যজোটের সভাপতি সালাউদ্দিন বাদলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- গীতিকার সাফাত খৈয়াম, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান সুলতান।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




মুজিববর্ষ: বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপন
56 57 days 18 19 hours 38 39 minutes 34 35 seconds

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT